ফুটবল
এখন মাঠে

৪৪টি দেশ থেকে টিকিট সংগ্রহে মেসি ভক্তরা

মেজর লিগ সকারে এবার ৪৪টি দেশ থেকে ইন্টার মায়ামি ম্যাচের টিকিট সংগ্রহ করেছে মেসি ভক্তরা। যা আগের মৌসুমে ছিল কেবলমাত্র ৯টি দেশ। যেখানে টিকিট সংগ্রহের তালিকায় যুক্তরাষ্ট্রের পরই অবস্থান আর্জেন্টাইনদের।

এক মৌসুম পার হয়ে গেলেও যুক্তরাষ্ট্রে মেসিকে নিয়ে উন্মাদনা একবিন্দুও কমেনি। মেসির পর সুয়ারেজের মায়ামিতে যোগদানে বরং সেই উন্মাদনা আরও বেড়েছে। ২১ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হয়েছে মেজর লিগ সকারের নতুন মৌসুম। আর এই মৌসুমকে সামনে রেখে ইন্টার মায়ামি’র ম্যাচের আগ্রহ নিয়ে নতুন তথ্য দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের টিকিট কেনাবেচা প্রতিষ্ঠান স্টাবহাব।

এমএলএসের নতুন মৌসুমে স্টাবহাবে ইন্টার মায়ামির টিকিটের চাহিদা সবচেয়ে বেশি। এমনকি এই প্রতিষ্ঠানের শীর্ষ ২৫টি প্ল্যাটফর্মের সবকটাতেই মায়ামির টিকিটের আধিপত্য। চলতি মৌসুমে ১০টি ম্যাচ ঘরের মাঠে, বাকি ১৫ ম্যাচ প্রতিপক্ষের মাঠে লড়বে পিংক জার্সিধারীরা।

গত মৌসুমের মাঝামাঝি সময়ে পিএসজি ছেড়ে ফ্রি এজেন্ট হিসেবে মায়ামিতে যোগ দেন মেসি। ফলে মৌসুমের শুরু থেকে বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ককে পায়নি দলটি। এবার শুরু থেকে মেসিকে পাওয়াতে টিকিটের চাহিদা বেড়েছে ১৫০ গুণ। এমনটাই জানিয়েছে স্টাবহাব। টিকিট বিক্রিতে দ্বিতীয় অবস্থানে আছে লস অ্যাঞ্জেলেস গ্যালাক্সি। আর এ তালিকায় তৃতীয় নিউ ইংল্যান্ড রেভ্যুলেশন।

এখন পর্যন্ত ৪৪টি দেশের মানুষ এমএলএসের নতুন মৌসুমের টিকিট কিনেছেন। যেখানে সবচেয়ে বেশি আগ্রহ আর্জেন্টাইনদের। টিকিটের এমন চাহিদা যা রীতিমতো আলোড়ন ফেলে দিয়েছে। গত মৌসুম শুরুর আগে এমএলএসের টিকিট কিনেছিল ৯টি দেশের ফুটবল ভক্তরা।

ইন্টার মায়ামির টিকিট বিক্রি বেড়ে যাওয়ায় অনুমিতভাবেই এমএলএসের টিকিট বিক্রিও সামগ্রিকভাবে বেড়েছে। স্টাবহাবে সবচেয়ে বেশি বিক্রি হয়েছে ২৫ ফেব্রুয়ারির এলএ গ্যালাক্সি-মায়ামি ম্যাচের টিকিট। এই ম্যাচের টিকিটের দাম ২৫০ ডলার থেকে সর্বোচ্চ ৭ হাজার ৮২০ ডলার। যা বাংলাদেশি টাকায় ৮ লাখেরও বেশি।

এমএসআরএস

এই সম্পর্কিত অন্যান্য খবর