ক্রিকেট
এখন মাঠে

আইপিএল থেকে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের বিদায়

এবার আইপিএল থেকে বিদায় নিলো ১০০ কোটি রুপি বাজেটে গড়া মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। এবারের আসরে হার্দিক পান্ডিয়ার পান্ডিত্যে খেলা হলো না প্লে অফে। শুরু থেকে বাজে পারফরম্যান্সে পয়েন্টে টেবিলের তলানিতে গিয়ে ঠেকায় অন্যদলগুলোর দিকে তাকিয়ে ছিলো মুম্বাই।

এবারের আইপিএলে প্রায় ১০০ কোটি রুপি বাজেটের দল মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের করুণ অবস্থা। প্লে অফের আগেই আসরের প্রথম দল হিসেবে বিদায় মুম্বাইয়ের দলটির। নামিদামি দেশি বিদেশি খেলোয়াড় থাকলেও পরিকল্পনার ঘাটতিতেই কি পিছিয়ে পড়েছে দলটি?

মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সে দীর্ঘদিন অধিনায়কত্ব করা রোহিত শর্মাকে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দিয়ে নতুন অধিনায়ক। শুধু তাই নয় এবারের আসরে বাকি দলগুলোর অধিনায়কদের তুলনায় পারিশ্রমিকের দিক দিয়ে ১৫ কোটি রুপিতে সবার শীর্ষে হার্দিক পান্ডিয়া। তবে কাড়ি কাড়ি অর্থ ব্যয়েও প্লে অফে খেলার যোগ্যতা অর্জন করতে পারলো না দলটি।

নতুন নেতৃত্বে শুরু থেকে একের পর এক হারে ১২ ম্যাচ শেষে ঘরে ফেরার প্রস্তুতির শঙ্কা জাগে আসরে সর্বোচ্চ পাঁচবারের চ্যাম্পিয়নদের। তবে যেটুকু আশা ছিলো প্লে অফে খেলার, তাও নিভে গেলো লখনৌর বিপক্ষে সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের জয়ে।

তবে দুই ম্যাচ বাকি থাকলেও কোন হিসেবে কাটা পড়েলেন হার্দিক, রোহিতরা মেলানো যাক সে হিসেব। তালিকায় শীর্ষে থাকা কলকাতা নাইট রাইডার্সের পয়েন্ট ১৬। সমান পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে রাজস্থান রয়্যালস। ঘরের মাঠে লখনৌকে হারিয়ে ১২ ম্যাচ খেলে ১৪ পয়েন্টে তিনে অবস্থান প্যাট কামিন্সদের। ১২ পয়েন্টে ধারাবাহিকক্রমে আছে চেন্নাই,দিল্লি ও লখনৌ। আর ৮ পয়েন্টে দিল্লির অবস্থান নয় নম্বরে।

বাকি দুই ম্যাচ জিতলেও তাদের পয়েন্ট হবে সর্বোচ্চ ১২। ইতোমধ্যে পয়েন্ট এবং রানরেটে এগিয়ে তিনটি দল। লখনৌ এবং দিল্লির পরের ম্যাচে জয়ী দল বা ১ পয়েন্ট পেলেও মুম্বাইয়ের থেকে ১২ পয়েন্ট থেকে এগিয়ে যাবে। সে হিসেবে মাঠে নামার আগেই সর্বনাশ হলো মুম্বাইয়ের। আসরে অংশগ্রহণের পর এ নিয়ে সপ্তমবারের মতো গ্রুপ পর্ব থেকে খালি হাতে ফিরলো পাঁচবারের চ্যাম্পিয়নরা।

এভিএস

এই সম্পর্কিত অন্যান্য খবর