ক্রিকেট
এখন মাঠে

আইপিএলে কোন দল কত পেল!

শেষ হয়েছে ফ্রাঞ্চাইজি ক্রিকেটের সবচেয়ে দামি আসর ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল)। যেখানে চ্যাম্পিয়ন হয়ে সর্বোচ্চ ২০ কোটি রুপি ঘরে তুলেছে কলকাতা নাইট রাইডার্স (কেকেআর)। আর রানার আপ হয়ে সানরাইজার্সের ঝুলিতে জমেছে ১৩ কোটি রুপি। শুধু তাই না মিডিয়াস্বত্ব, টিকিট বিক্রিসহ নানাখাত থেকেও আয় করেছে অংশ নেয়া দলগুলো।

আইপিএল মানেই চার-ছক্কার ফুলঝুরি। সর্বোচ্চ রান সংগ্রহ কিংবা সেই রান টপকে জিতে যাওয়া, আরও কত নাটকীয়তা। প্রায় দেড় মাসের এই আসরে এর সবই দেখেছেন আইপিএল অনুরাগীরা। ভক্তদের বিনোদন দিতে কার্পণ্য করেনি ফ্রাঞ্চাইজি দলগুলো।

আইপিএলের যত আসর গড়াচ্ছে, ততই আকর্ষণ বাড়ছে ভক্তদের কাছে। আর তাতে দিন দিন প্রতিযোগিতা বাড়ছে এই আসরে। দল গঠন করতেও তাই বিনিয়োগ বাড়ছে ফ্রাঞ্চাইজিগুলোর, খরচ করছে কোটি কোটি রুপি। আর তা করতে কার্পণ্য না করার বড় কারণ হলো আসর থেকে আয়ের সুযোগ অনেক। এরমধ্যে সবচেয়ে বেশি আয়ের সুযোগ থাকে চ্যাম্পিয়ন দলের।

আইপিএলের এই আসরে প্রায় ৫০ কোটি রুপির আর্থিক পুরস্কার দেয়া হয়েছে। যেখানে চ্যাম্পিয়ন দলকে প্রাইজমানি হিসেবে দেয়া হয়েছে ২০ কোটি রুপি। তবে এছাড়াও চ্যাম্পিয়ন দলের আয় হয়েছে মিডিয়া স্বত্ব, টিকিট বিক্রিসহ বিভিন্ন পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠান থেকে। একইভাবে রানার আপ দল প্রাইজ মানির ১৩ কোটি রুপি ছাড়াও এসব খাত থেকে আয় করেছে। তবে এসব খাত থেকে সবচেয়ে বেশি অর্থ দেয়া হয় চ্যাম্পিয়ন হওয়া দলকে।

আসরের তৃতীয় হওয়ায় ৭ কোটি রুপি আয় করেছে রাজস্থান রয়েলস। আর চতুর্থ হওয়া ব্যাঙ্গালুরুর আয় পেয়েছে সাড়ে ৬ কোটি রুপি। এর বাইরেও শুধু আসরে অংশ নিয়ে আয় করেছে ফ্রাঞ্চাইজিগুলো।

আইপিএলের পুরো মৌসুমে সবচেয়ে বেশি রান করা ব্যাটসম্যানকে অরেঞ্জ ক্যাপ পুরস্কার দেয়া হয়। যেটা এবার পেয়েছেন ভিরাট কোহলি। আর এই অরেঞ্জ ক্যাপ বিজয়ীকে দেয়া হয় ১৫ লাখ রুপি।

আইপিএলের এক মৌসুমে সবচেয়ে বেশি উইকেট নেয়া বোলার পেয়ে যান পার্পল ক্যাপ। এই পুরস্কারের জন্যও দেয়া হয় একই অঙ্কের অর্থ। এছাড়া উদীয়মান ক্রিকেটারকে ২০ লাখ ও আসরের সেরা ক্রিকেটারকে ১৫ লাখ রুপি আর্থিক পুরস্কার দেয়া।

এমএসআরএস

এই সম্পর্কিত অন্যান্য খবর