বিদেশে এখন
তিন মাসে ৮০ হাজার সেনা হারালো ইউক্রেন
চলতি বছর প্রথম তিন মাসেই ৮০ হাজার সেনা হারিয়েছে ই্উক্রেন। এমনটাই বলছে রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়। এদিকে সেনা সংকটে সেনাবাহিনীতে যোগদানের বয়স ২৭ থেকে ২৫ এ নামিয়ে এনেছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট। অন্যদিকে গুঞ্জন উঠেছে ইউক্রেনকে ৫ বছরে ১০ হাজার কোটি ইউরোর সামরিক সহায়তা দেয়ার প্রস্তাব করেছেন ন্যাটো প্রধান।

২০২২ সালের ফেব্রুয়ারিতে ইউক্রেনে সেনা অভিযান শুরু করে রাশিয়া। এরপর থেকে এখন পর্যন্ত উল্লেখযোগ্যহারে সেনা সদস্য হারিয়েছে দুই দেশই। তবে সমরাস্ত্র সংকটে গেল তিন মাসে বেশ বিপাকে পড়ে গেছে ইউক্রেন। এই সময়টা সর্বোচ্চ ৮০ হাজার সেনা সদস্য হারিয়েছে ইউক্রেন।

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রী সের্গেই শইগু জানান, সেনা সদস্য হারানোর পাশাপাশি রুশ বাহিনীর কাছে সামরিক সরঞ্জামও হারাচ্ছে ইউক্রেন। জানুয়ারি থেকে এখন পর্যন্ত ১৪ হাজার সামরিক সরঞ্জাম ধ্বংস হয়েছে ইউক্রেনের। এরমধ্যে আছে ১২শ' ট্যাঙ্ক আর সাঁজোয়া যান।

এই সময়টায় ৪০৩ কিলোমিটার এলাকা দখলে নিয়েছে রাশিয়া। পশ্চিমা সহায়তার অভাবে ইউক্রেন সন্ত্রাসী কার্যক্রম বেছে নিয়ে রাশিয়ার সাধারণ মানুষের ওপর হামলা করছে বলেও অভিযোগ উঠেছে। রাশিয়ার দাবি, যুদ্ধ শুরুর পর থেকে এখন পর্যন্ত প্রায় সাড়ে ৪ লাখ সেনা হারিয়েছে ইউক্রেন।

এদিকে যুদ্ধক্ষেত্রে পশ্চিমা সহায়তা নিয়ে যখন কোন অগ্রগতি নেই তখন দেশের তরুণদের সেনাবাহিনীতে যোগদানের বয়সসীমা ২ বছর কমিয়েছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। এই সংক্রান্ত বিল পাশের পর সেনাবাহিনীতে তরুণরা যুক্ত হবেন বলে প্রত্যাশা প্রেসিডেন্টের।

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি বলছেন, 'চলতি বছরের ডিসেম্বর নাগাদ ৫ লাখ নতুন সেনাসদস্য প্রয়োজন। তার আশঙ্কা, চলতি বছর গ্রীষ্মে ইউক্রেনে ভয়াবহ হামলা চালাবে রাশিয়া।'

রুশ প্রেসিডেন্টের দাবি, ইউক্রেনে তাদের ৬ লাখ সেনা যুদ্ধ করছে, কিন্তু হতাহতের সংখ্যা কখনও প্রকাশ করা হয়নি। যদিও মার্কিন গোয়েন্দা প্রতিবেদনে বলা হয়, যুদ্ধ শুরুর পর থেকে এখন পর্যন্ত ৩ লাখের বেশি সেনা হারিয়েছে রাশিয়া।

এদিকে পশ্চিমা সহায়তার অভাবে ইউক্রেন যখন সম্মুখযুদ্ধে কোণঠাসা তখনই ন্যাটো থেকে আসলো নতুন বার্তা। কয়েকজন কূটনীতিকদের বরাত দিয়ে সংবাদ মাধ্যম ডয়চে ভেলেতে প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়, ইউক্রেনকে ৫ বছরে আরও ১০ হাজার কোটি ডলারের সামরিক সহায়তা দেয়ার প্রস্তাব করেছেন ন্যাটো প্রধান জেনস স্টলটেনবার্গ। জুলাই মাসে ওয়াশিংটনে ন্যাটো সম্মেলনে এই প্যাকেজ চূড়ান্ত করা হবে। ইউক্রেনের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের ৬ হাজার কোটি ডলারের সামরিক সহায়তা প্যাকেজ কংগ্রেসে আটকে গিয়ে বাঁধে যতো বিপত্তি।

ইএ