দেশে এখন
সাভারে লরি উল্টে ৫ গাড়িতে আগুন, দুজনের মৃত্যু
সাভারের হেমায়েতপুরে তেলবাহী একটি লরি উল্টে চারটি ট্রাক ও একটি প্রাইভেটকার পুড়ে গেছে। এ সময় দুইজন নিহত ও কয়েকজন দগ্ধ হয়েছেন। দগ্ধ ব্যক্তিদের মধ্যে তিনজনের শরীরের ১০০ শতাংশ পুড়ে গেছে বলে জানিয়েছেন শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের চিকিৎসক।

আজ মঙ্গলবার (২ এপ্রিল) ভোরে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের জোড়পুল এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ভোর থেকে ৩ ঘণ্টা বন্ধ ছিল ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের যান চলাচল। থেমে থেকে চলছে সড়কটিতে থাকা বিভিন্ন যানবাহন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ভোর পাঁচটার পর তেলবাহী একটি লরি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সড়কের আইল্যান্ডে ধাক্কা দিলে আগুন ধরে যায়। এতে সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এ সময় লরির পেছনে আটকে থাকা চারটি ট্রাক ও একটি প্রাইভেটকারে মুহূর্তের মধ্যে আগুন ছড়িয়ে পড়ে।

খবর পেয়ে সাভার ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের একটি অ্যাম্বুলেন্স ও দুটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছে নয়জনকে অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে দ্রুত শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে পাঠায়। ঘটনাস্থলেই নিহত হয় একজন।

সাভার ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার নুরুল ইসলাম জানান, আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে। তবে তাৎক্ষণিকভাবে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ জানা যায়নি।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সাভার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ জামান বলেন, ‘এ ঘটনার পর ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক দুই ঘণ্টার বেশি সময় বন্ধ ছিল। এখন যান চলাচল করছে। তবে সড়কটিতে ব্যাপক জটলা রয়েছে। পুলিশ কাজ করছে।’

তবে এ ঘটনায় হতাহতদের পরিচয় পাওয়া যায়নি।

শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের আবাসিক সার্জন মো. তরিকুল ইসলাম বলেন, ‘হেমায়েতপুরে একটি তেলবাহী গাড়ির তেল লিকেজ হয় ভোর ৫টায়। একে একে ৫টি পরিবহনসহ একটি ব্যক্তিগত গাড়িতে লাগা আগুন ছড়িয়ে পড়ে। দগ্ধ হয় ৯ জন মানুষ। হাসপাতালে আনার পর একজন রোগী মারা গেছেন। তিনজনের ১০০ শতাংশ পুড়ে গেছে অর্থাৎ শতভাগ ফেইজ বার্ন হয়েছে।’

আসু