ব্যাংকপাড়া
অর্থনীতি
আর্থিক প্রতিষ্ঠানের এমডি-সিইও নিয়োগে সর্বোচ্চ বয়সসীমা ৬২ বছর
ব্যাংক বহির্ভূত আর্থিক প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) এবং প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) পদে নতুন নিয়োগের ক্ষেত্রে আবেদনের সর্বোচ্চ বয়সসীমা ৬২ বছর হবে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

সোমবার (২৫ মার্চ) ফাইন্যান্স কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তার নিয়োগ এবং তার দায়দায়িত্ব, কর্তব্য ও ক্ষমতা বিষয়ে নীতিমালা জারি করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

নীতমালায় বলা হয়েছে, কোনো ব্যক্তির বয়স ৬৫ বছর পার হলে ফাইন্যান্স কোম্পানির এমডি ও সিইও পদে তিনি থাকতে পারবেন না।

এছাড়াও এসব পদে নিয়োগের ক্ষেত্রে ফাইন্যান্স কোম্পানি বা ব্যাংকিং পেশায় সক্রিয় কর্মকর্তা হিসেবে কমপক্ষে ২০ বছরের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে বলে জানানো হয়েছে।

প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা হতে হলে ব্যক্তিকে তার আগের পদে কমপক্ষে দুই বছরের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। সিইও নিয়োগের মেয়াদ সাধারণভাবে তিন বছর হবে। তবে এ পদে পুনর্নিয়োগ পেতে পারেন তিনি।

যদি পুনরায় নিয়োগের জন্য প্রার্থীর বয়স ৬৫ বছর থেকে সর্বনিম্ন ১ বছর সময় থাকে, তবে সেক্ষেত্রেও সে সময়ের জন্যও তাকে নিয়োগ দেয়া যাবে।

তবে যে মেয়াদের জন্যই প্রস্তাব করা হোক না কেন বাংলাদেশ ব্যাংক সে প্রার্থীর সাক্ষাৎকার গ্রহণ করবে। এরপর তার উপযুক্ততা পরীক্ষা করে যে মেয়াদের জন্য নিয়োগ সুপারিশ করা হবে, সে মেয়াদের জন্য তাকে ফাইন্যান্স কোম্পানি নিয়োগ দিতে পারবে।

নীতিমালায় শিক্ষাগত যোগ্যতার বিষয়ে বলা হয়েছে, এমডি হতে হলে কোনো স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ন্যূনতম স্নাতকোত্তর ডিগ্রিধারী হতে হবে। অর্থনীতি, হিসাববিজ্ঞান, ফাইন্যান্স, ব্যাংকিং, ব্যবস্থাপনা কিংবা ব্যবসায় প্রশাসন বিষয়ে উচ্চতর প্রাতিষ্ঠানিক বা পেশাগত শিক্ষা সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির অতিরিক্ত যোগ্যতা হিসেবে বিবেচিত হবে।

শিক্ষাজীবনের কোনো পর্যায়ে তৃতীয় বিভাগ বা শ্রেণি থাকতে পারবে না। গ্রেডিং পদ্ধতিতে প্রকাশিত ফলাফলের ক্ষেত্রে এসএসসি বা সমমান ও এইচএসসি বা সমমান পরীক্ষার ক্ষেত্রে জিপিএ ৩-এর কম এবং অনুমোদিত বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃক প্রদত্ত সিজিপিএ-এর ক্ষেত্রে ৪ পয়েন্ট স্কেলে ২.৫০ এর কম ও ৫ পয়েন্ট স্কেলে ৩-এর কম হলে তা গ্রহণযোগ্য হবে না।

এমএসআরএস