দেশে এখন

ঈদ উদযাপন শেষে ঢাকায় ফিরতে শুরু করেছে নগরবাসী

ঈদুল আজহার ছুটি শেষে চালু হয়েছে সরকারি-বেসরকারি অফিস, আদালত, ব্যাংকসহ আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো। তাই কর্মস্থলে যোগ দিতে প্রিয়জনের সাথে ঈদ উদযাপন শেষে ঢাকায় ফিরতে শুরু করেছেন কর্মজীবী মানুষ। গতকাল থেকেই ঢাকায় ফিরতে শুরু করেছেন তারা। তবে আজ এ সংখ্যা কিছুটা বেশি।

অন্যদিকে ঈদ পরিবারের সঙ্গে উদযাপনে সুযোগ না পেলেও ঈদ শেষেই স্বজনদের টানে বাড়ি ফিরছেন অনেকে। 

কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনে সকাল থেকেই ছিল যাত্রী চাপ। সারাদেশ থেকে আন্তঃজেলা ও লোকাল মিলে ২০টি ট্রেন এসেছে স্টেশনে। সবগুলো ট্রেনই ছিল যাত্রীতে ভরপুর।

বাড়তি চাপ না থাকায় যাত্রীরা ফিরছেন নিরাপদে ও স্বস্তিতে। পরিবার-পরিজনের সাথে ঈদ করতে পেরে খুশি সবাই। তারা বলছেন, ঈদযাত্রা ছিল নির্বিঘ্ন।

এদিকে, আজও বাড়ি ফিরেছেন অনেকে। ভিড় আর ভোগান্তি এড়াতেই ঈদের পর ঢাকা ছেড়েছেন তারা।

বাংলাদেশ রেলওয়ের বিভাগীয় বাণিজ্যিক কর্মকর্তা শাহ্ আলম কিরণ শিশির বলেন, 'ঢাকায় ফেরা যাত্রীদের সুবিধার্থে চলাচল করবে ৩ টি স্পেশাল ট্রেন। আজ কিছুটা কম থাকলেও আগামীকাল যাত্রীচাপ আরও বাড়বে।'

এছাড়া বাসযোগেও ঢাকায় ফিরছেন অনেক যাত্রী। ফিরতি ঈদযাত্রা শুরু হলেও ঢাকামুখী মানুষের ঢল তেমনভাবে শুরু হয়নি বলে জানিয়েছেন পরিবহন চালকরা। আগামী কয়েকদিনে চাপ বাড়বে বলে প্রত্যাশা তাদের।

ঢাকায় ফেরা যাত্রীদের মাঝে চাকরিজীবী যেমন আছেন, তেমনি শিক্ষার্থী ও সীমিত আয়ের শ্রমজীবী মানুষদের সংখ্যাও বেশি।

ইএ

এই সম্পর্কিত অন্যান্য খবর