এশিয়া
বিদেশে এখন

পশ্চিমবঙ্গে জমজমাট পশুর হাট

ভারতের পশ্চিমবঙ্গে কোরবানির আগে জমজমাট পশুর হাট। গরমে বিক্রি খানিকটা কমলেও ঈদের আগে একেকটি গরুতে পাঁচ থেকে ১০ হাজার রুপি পর্যন্ত লাভ করছেন বিক্রেতারা। ক্রেতারা বলছেন ঈদ ঘনিয়ে এলেও দাম সাধ্যের মধ্যে।

পবিত্র ঈদুল আজহার তিনদিন আগে ভারতের পশ্চিমবঙ্গে কলকাতা-বারসাতের বেশ কাছেই আমডাংগা আর বিরহীতে বসেছে গরুর হাট। বহু বছর ধরে ঈদ সামনে রেখে এ হাট বসে। কোরবানির জন্য গরু-ছাগলসহ কয়েক বছর আগে থেকে তালিকায় যুক্ত হয়েছে হাঁস, মুরগি, পায়রাসহ নানা ধরনের পাখি। দিনকে দিন হাটে বাড়ছে ক্রেতাদের সমাগম, বাড়ছে কেনাবেচাও।

এক ক্রেতা বলেন, 'এখানে প্রচুর লোকজন কাজ করে সংসার চালায়। ঈদের আগে বেচাকেনা বাড়ে। কোটি কোটি টাকা লেনদেন হয়। পশুর দাম এবার কমই আছে।'

এ বছর তীব্র গরমে বাজারে ক্রেতাদের ভিড়, আর বিক্রি খানিকটা কমলেও আজ শেষ দিন বলে তেমন ক্ষতি গুণতে হচ্ছে না ব্যাপারিদের। একেকটি গরুতে পাঁচ থেকে ১০ হাজার রুপি পর্যন্ত লাভ হচ্ছে অনেকের।

এক বিক্রেতা বলেন, 'অন্যান্য হাটগুলোর চেয়ে এই হাট অনেক বেশি জমজমাট হয়। এবারর সবোর্চ্চ গরুর দাম ৮০-৯০ হাজার টাকা।'

স্থানীয়রা জানান, সপ্তাহে হাট বসে দু'দিন। সে সময় কয়েক কোটি রুপির পশু-পাখি কেনাবেচা হয়। গড়ে প্রায় ৫০০ ক্রেতা-বিক্রেতার পাশাপাশি একেকজন পাইকারি ব্যবসায়ী দিনে এক-দেড় লাখ রুপির পশু-পাখি কেনাবেচা করেন এখানে। এ হাটের ওপর নির্ভরশীল প্রায় পাঁচ হাজার মানুষের জীবিকা।

এভিএস

এই সম্পর্কিত অন্যান্য খবর