পরিষেবা
অর্থনীতি
আয়কর মেলার অভিযোগ বক্সে কাচ্চি বিরিয়ানির আবদার
কর সেবা মাসে রাজধানীর একটি কর অঞ্চলের অভিযোগ বক্সে পাওয়া গেছে এমনই এক অদ্ভূত আবদার।

কর অফিসের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কার্যক্রম ও সেবা নিয়ে কোনো প্রকার অসন্তুষ্টি থাকলে তা অভিযোগ আকারে জনানোর জন্য রাখা আছে একটি বক্স। কিংবা পরামর্শ থাকলে সেটিও দেওয়া যাবে। মজার ব্যাপার হলো সেই বক্সে অভিযোগ তো জানালেনই না, বরং সেবায় সন্তুষ্টি প্রকাশ করে উল্টো কাচ্চি বিরিয়ানি সঙ্গে বোরহানি খাওয়ার আবদার এক করদাতার।

পুরো নভেম্বর জুড়েই দেশের ৩১টি কর অঞ্চলে মেলার পরিবেশে জমা নেওয়া হয়েছে রিটার্ন। ঢাকার সেগুনবাগিচা, কাঁকরাইল, মগবাজার এলাকায় বেশকিছু কর অঞ্চলের অফিস। এসব অফিসের বাইরে নানাভাবে সাজিয়ে অস্থায়ী বুথ তৈরি করে রিটার্ন জমার কার্যক্রম চলেছে।

সাধারণ কর অফিস নিয়ে নানা অভিযোগ থাকলেও মেলার পরিবেশে এই এক মাস সুন্দর সেবা দিতে বদ্ধপরিকর এনবিআর ও কর অঞ্চলগুলো। খোলামেলা পরিবেশে কর আহরণের সময় চোখে পড়ে এমন ভুল তো করাই যাবে না। যদি কোনো সমস্যা থাকে তা জানাতে সব আঞ্চলিক অফিসের অস্থায়ী মেলাতেই রাখা আছে একটি করে অভিযোগ ও পরামর্শ বক্স।

বৃহস্পতিবার (৩০ নভেম্বর) ছিলো মেলার পরিবেশে কর সেবা মাসের শেষ মুহূর্ত। মগবাজারের একটি কর অঞ্চলের অফিসের অভিযোগ ও পরামর্শ বক্স খুলেছেন একজন কর কর্মকর্তা। তিন থেকে চারটা কাগজ দেখে বেশ শঙ্কিত ওই কর্মকর্তা। না জানি কোন অভিযোগ এসে হাজির হয়। তবে, অভিযোগের কাগজ খুলেই হাসলেন তিনি।

অভিযোগের পরিবর্তে ওই কাগজে লেখা আছে, 'সাইদুল ভাই বলছি এমকিউ থেকে। দুপুর বেলায় সবার জন্য কাচ্চি রাখতে হবে, সাথে বোরহানী। আপনাদের কার্যক্রম অনেক ভালো, কাচ্চি অবশ্যই রাখবেন।' এই পরামর্শের পরে তার মোবাইল নাম্বারও আবার দিয়ে গেছেন।

কাগজের লেখা পড়ে দুই একজন কর কর্মকর্তা-কর্মচারিরা হাসতে হাসতে বলতে লাগলেন, 'মানুষের আর কাজ! মাঝে মাঝেই এমন নানা কিসিমের মতামত আমরা পাই।'


এমএসআরএস
আরও পড়ুন: