আমদানি-রপ্তানি
অর্থনীতি

এক ছাদের নিচে যুক্তরাষ্ট্রের ৪৪ ব্যান্ডের পণ্য

ঢাকায় ২৯তম ইউএস ট্রেড শো'র পর্দা নামছে আজ (শনিবার, ১১ মে)। তিনদিনের এ প্রদর্শনীতে যুক্তরাষ্ট্রের ৪৪টি প্রতিষ্ঠান অংশ নেয়। সবচেয়ে বেশি ভিড় প্রসাধনীর স্টলে। সরাসরি যুক্তরাষ্ট্রের ব্র্যান্ডের পণ্য কিনতে পেরে সন্তোষ প্রকাশ করেন ক্রেতারা। আর আয়োজকরা বলছেন, ঢাকা-ওয়াশিংটন বাণিজ্য সম্প্রসারণে এই প্রদর্শনী কাজে আসবে।

রাজধানীর ইন্টারকন্টিনেন্টাল হোটেলে তিন দিনের এ প্রদর্শনীতে অংশ নিয়েছে ৪৪টি প্রতিষ্ঠান। শেই পাওয়া যাবে যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন পণ্য যার মধ্যে মূল আকর্ষণ প্রসাধনী। হারল্যান, হিটবিউটি, এক্সপোজ ইউএসএ সহ এক ছাদের নিচেই রয়েছে নানা ব্র্যান্ড।

দেশের মানুষ যেন খুব সহজেই ভালো পণ্য ব্যবহার করতে পারেন এবং নকল পণ্য উৎপাদন কমে যায় সেই জন্যই এমন উদ্যোগ জানান হারল্যান ব্র্যান্ড এর ডেপুটি ডিরেক্টর তাসমিয়া মীম।

তিনি বলেন, 'বিদেশি প্রোডাক্টগুলো মানুষ পাচ্ছে না বলেই কিন্তু নকলের একটা প্রবণতা সৃষ্টি হচ্ছে। আমরা ওই জায়গাটায় আসলে কাজ করতে চাচ্ছি। দেশের মানুষকে অথেকটিক প্রোডাক্টগুলো রিজেনেবল প্রইজে হাতে তুলে দিতে চাচ্ছি।

প্রতিটি প্রসাধনীর স্টলেই দেখা গেছে ক্রেতা সমাগম। সুলভ মূল্যে ভালো পণ্য কিনতে পেরে সন্তুষ্ট ক্রেতা।

একজন ক্রেতা বলেন, 'আমরা ঠিকই পে করছি কিন্তু অথেনটিক প্রোডাক্ট পাচ্ছি না। অনলাইলেও আমাদের সিউর করতে পারে না আসলে জিনিসগুলো আসল কি না। কিন্তু এখানে আসার পর দেখলাম যুক্তরাষ্ট্রের কিছু ব্র্যান্ড আছে। এ রকম মেলা বছরে দুই তিন বার হলে আমাদের জন্য ভালো হয়।'

প্রসাধনী ছাড়াও রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র থেকে আমদানি করা শুকনো খাবার, চকলেট, প্লাস্টিক পণ্যের কাঁচামাল, কৃষিপণ্যের মেশিনারির অত্যাধুনিক যন্ত্রসহ বিভিন্ন আকর্ষণীয় সেবামূলক পণ্য।

এই প্রদর্শনীর মাধ্যমে দেশের সাথে যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্যখাত আরও সম্প্রসারিত হবে বলে মনে করেন ট্রেড শো তে অংশ নেয়া ব্যবসায়ীরা।

ইউএস ফুড মার্টের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আক্তারুজ্জামান খান বলেন, 'যুক্তরাষ্ট্রের প্রোডাক্ট বাংলাদেশে বিক্রি হচ্ছে। তারমানে বাংলাদেমও আমেরিকারে ব্যবসা করার সুযোগ দিচ্ছে। এটা দুই দেশের জন্যই খুব ভালো একটা পদক্ষেপ।'

যুক্তরাষ্ট্রের পণ্য ও সেবা প্রদর্শন এবং দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য বৃদ্ধির লক্ষ্যে যৌথভাবে এ প্রদর্শনীর আয়োজন করেছে আমেরিকান চেম্বার অব কমার্স ইন বাংলাদেশ ও ঢাকার যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাস।

এমএসআরএস

এই সম্পর্কিত অন্যান্য খবর