সংস্কৃতি ও বিনোদন

সালমান খানের বাড়িতে গুলির ঘটনায় ২ জন গ্রেফতার

বলিউড সুপারস্টার সালমান খানের বাড়িতে গুলি চালানোর ঘটনায় ভারতীয় পুলিশ মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) কুখ্যাত অপরাধী চক্রের দুই সদস্যকে গ্রেফতার করেছে।

সুপারস্টারের দুটি হরিণ হত্যার প্রতিশোধ নিতে তারা ওই হামলা চালিয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। পুলিশ এএফপিকে জানায়, পশ্চিমাঞ্চলীয় রাজ্য গুজরাট থেকে মঙ্গলবার ২৪ ও ২১ বছর বয়সী দুই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

কচ্ছ জেলা পুলিশ অফিসার মহেন্দ্র বাগারিয়া বলেন, 'আমরা একটি মন্দিরের কাছে দুই অভিযুক্তকে শনাক্ত করতে সক্ষম হয়েছি। আমাদের দল মন্দিরে পৌঁছে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে। খবর এএফপি’র।'

মরুভূমি-ভিত্তিক ধর্মীয় সম্প্রদায় থেকে আগত বিষ্ণোই গ্যাং সম্পর্কে বেশ কয়েকটি খুন চাঁদাবাজির অভিযোগ রয়েছে। ৫৮ বছর বয়সী খান, ১৯৯৮ সালে একটি বিনোদনমূলক শিকার ভ্রমণে দুটি কৃষ্ণসার হরিণকে গুলি করার জন্য গ্রুপটির বৈরীতার শিকার হন।

গ্যাংয়ের জেলে থাকা নেতা লরেন্স বিষ্ণোই অতীতে খানকে একাধিক হত্যার হুমকি দেয়। অভিনেতাকে গুলি চালানোর সময় বাড়িতে ছিলেন। জীবনের হুমকির কারণে তিনি সশস্ত্র পুলিশ সদস্যদের প্রহরায় ছিলেন।

বান্দ্রার উচ্চ মুম্বাই পাড়ায় রোববার ভোররাতে খানের প্রথম তলার অ্যাপার্টমেন্টে মোটরবাইকে থাকা দুই ব্যক্তি গুলি করে পালিয়ে যাওয়ার আগে কয়েক রাউন্ড ফাকা গুলি চালায়।

বিষ্ণোই সম্প্রদায়ের সদস্যরা ২০ বছর ধরে কৃষ্ণসার শিকারের জন্য খানের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা চালায়। ২০১৮ সালে বন্যপ্রাণী সুরক্ষা আইন লঙ্ঘনের জন্য খানকে স্থানীয় আদালত পাঁচ বছরের কারাদন্ড দেয়। তবে খানকে কারাগারে পাঠানোর মাত্র কয়েকদিন পরেই আপীলে শাস্তি স্থগিত করা হয়। এতে করে লরেন্স বিষ্ণোই তার দলের আইন নিজের হাতে তুলে নেওয়ার ব্যাপারে সতর্ক করে। গ্যাং নেতার বিরুদ্ধে ২০২২ সালে জনপ্রিয় ভারতীয় র‌্যাপার সিধু মুজ ওয়ালার হত্যা সহ বেশ ক'টি খুনের পরিকল্পনার অভিযোগ রয়েছে।

ইএ

এই সম্পর্কিত অন্যান্য খবর