স্বাস্থ্য
দেশে এখন

নর্দমার পাশে থাকা বর্জ্যে মশার আশ্রয়স্থল

রাজধানীতে তাপমাত্রার তারতম্যের কারণে ডেঙ্গুর প্রকোপ বাড়ার আশঙ্কা করছেন নগরবাসী। হিসেবে বৃষ্টির পর তাপমাত্রা বাড়া ডেঙ্গু প্রজননের উপযুক্ত মৌসুম। এদিকে খাল, নালা-নর্দমার পাশে জমে থাকা বর্জ্য মশার আশ্রয়স্থল হিসেবে কাজ করছে। যদিও কাউন্সিলররা বলছেন, জলাশয় ও নর্দমা পরিষ্কারের পাশাপাশি নিয়মিত মশক নিধন কর্মসূচি অব্যাহত আছে।

গতকাল (বৃহস্পতিবার, ৩০ মে) সারাদেশে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ২৫ জন। আক্রান্তদের মধ্যে শুধু ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন এলাকারই ১২ জন। এসময় ডেঙ্গুতে মৃত্যু হয়েছে একজনের।

স্থানীয় একজন বলেন, 'সিটি করপোরেশন থেকে লোক দিলে তারা পরিষ্কার করে। কিন্তু সে রকম লোক তো দেয়ই না। এখানে আশেপাশে ময়লা-আবর্জনা জমে আছে। বৃষ্টি হইলে সব ময়লা ঘরের ভেতর ঢুকে যায়। জমে থাকা এই পানিতে মশা বাড়ে।'

চলতি বছরের ১ জানুয়ারি থেকে ৩০ মে পর্যন্ত সারাদেশে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে মোট ২ হাজার ৮৩৫ জন। এ পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ৩৬ জনের।

ডিএনসিসি ১৮ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর জাকির হোসেন বলেন, 'প্রতিটি এলাকায় মশার কীটনাশক ছিটানো হচ্ছে। বিকেল করে ফগার মেশিনে ধোঁয়া দেয়া হচ্ছে। প্রতিটি কাউন্সিলরকে মেয়র ৫০ হাজার টাকা করে প্রতি মাসে দিচ্ছেন ডেঙ্গু নিয়ে কাজ করার জন্য।'

এমএসআরএস

এই সম্পর্কিত অন্যান্য খবর