আমদানি-রপ্তানি
অর্থনীতি
নয় মাসে রপ্তানি আয় ৪ হাজার ৩৫৫ কোটি ডলার
গত ডিসেম্বর থেকে টানা তিন মাস ধরে প্রতিমাসে পণ্য রপ্তানি ৫শ' কোটি ডলারের বেশি হয়েছে। এবার তার সঙ্গে যুক্ত হয়েছে মার্চ। গত মাসে ৫১০ কোটি ডলারের পণ্য রপ্তানি হয়েছে বাংলাদেশ থেকে। এই রপ্তানি গত বছরের মার্চের তুলনায় ৯.৮৮ শতাংশ বেশি।

চলতি ২০২৩-২৪ অর্থবছরে জুলাই থেকে মার্চ পর্যন্ত ৯ মাসে ৪ হাজার ৩৫৫ কোটি ডলারের পণ্য রপ্তানি হয়েছে। এই রপ্তানি গত অর্থবছরের একই সময়ের তুলনায় ৪.৩৯ শতাংশ বেশি। আজ (মঙ্গলবার, ২ এপ্রিল) রপ্তানি আয়ের এই হালনাগাদ পরিসংখ্যান প্রকাশ করেছে রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরো (ইপিবি)।

ইপিবি'র তথ্য অনুযায়ী, চলতি অর্থবছরে এখন পর্যন্ত তৈরি পোশাক, কৃষি প্রক্রিয়াজাত পণ্য ও প্লাস্টিক পণ্যের রপ্তানি বেড়েছে। অন্যদিকে চামড়া ও চামড়াজাত পণ্য, পাট ও পাটজাত পণ্য, হোম টেক্সটাইল ও প্রকৌশল পণ্যের রপ্তানি কমেছে। এর ফলে সামগ্রিক পণ্য রপ্তানিতে প্রবৃদ্ধির হার কিছুটা কম।

চলতি অর্থবছরের জুলাই থেকে মার্চ, এই সময়ে ৩ হাজার ৭২০ কোটি ডলারের তৈরি পোশাক রপ্তানি হয়েছে। এই রপ্তানি গত বছরের একই সময়ের চেয়ে ৫.৫৩ শতাংশ বেশি। এ ছাড়া ৭৯ কোটি ডলারের চামড়া ও চামড়াজাত পণ্য রপ্তানি হয়েছে। এই রপ্তানি গত অর্থবছরের একই সময়ের তুলনায় ১৩.৬৫ শতাংশ কম।

গত ২০২২-২৩ অর্থবছরে মোট ৫ হাজার ৫৫৬ কোটি ডলারের পণ্য রপ্তানি হয়। চলতি অর্থবছরে সরকার ৬ হাজার ২০০ কোটি ডলারের পণ্য রপ্তানির লক্ষ্যমাত্রা ঠিক করেছে। তবে মার্চ শেষে পণ্য রপ্তানি লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ৫.৮৬ শতাংশ পিছিয়ে রয়েছে।

এসএসএস