ক্রিকেট
এখন মাঠে
বাংলাদেশকে ফলোঅনে না পাঠিয়ে লঙ্কানদের ব্যাট
চট্টগ্রাম টেস্টে ৪৫৫ রানের পাহাড়সম রানে এগিয়ে থেকে তৃতীয় দিন শেষ করেছে শ্রীলঙ্কা। তৃতীয় সেশনে বাংলাদেশের দুই পেসারের তাণ্ডবে ২৫ ওভার খেলে ১০২ রানে ৬ উইকেট হারিয়েছে লঙ্কানরা। এতে দ্রুত বাকি ৪ উইকেট শিকারে বিশাল এই রান তাড়াতে জয়ের দাড়ে পৌঁছাতে শঙ্কায় স্বাগতিকরা।

তৃতীয় দিনে প্রথম ইনিংসে ৩৫৩ রানের বিশাল লিডে শ্রীলঙ্কা। এরপরও বাংলাদেশকে ফলোঅনে না পাঠিয়ে ব্যাট হাতে মাঠে নামে লঙ্কানরা। সে সুযোগে ব্যাটারদের হতাশা কাটাতে রীতিমত তাণ্ডব চালায় বাংলাদেশের পেসাররা।

বড় রানে এগিয়ে থাকায় শুরু থেকে আক্রমণাত্মক খেলেন লঙ্কান দুই ক্রিকেটার দিমুথ করুনারত্নে ও কুশাল মেন্দিস। দ্রুত রান তুলতে গিয়ে বিপদেও পড়ে সফরকারীরা। দলীয় ১৫ রানে দুই ওপেনারকে হারায় লঙ্কানরা।

সময় গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে আরও আগ্রাসী হয়ে উঠে বাংলাদেশের দুই পেসার খালেদ আহমেদ আর হাসান মাহমুদ। দুই বোলারের ঘূর্ণিতে একে একে কাটা পড়েন দিনেশ চান্দিমাল, অধিনায়ক ধনাঞ্জয়া দি সিলভাসহ কামিন্দ মেন্দিস।

১০২ রানে ৬ উইকেটে দিনের শেষ বেলায় ৪৫৫ রানের বিশাল লিডে স্বস্তিতে শ্রীলঙ্কা। তাতে বাংলাদেশের হতাশা কিছুটা কাটলেও বড় রানের লিডে দ্বিতীয় টেস্টেও হারের শঙ্কা কাটছে না স্বাগতিকদের। দিনশেষে ৩৯ রানে অপরাজিত আছেন অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউজ।

দিনের শেষ বেলার মতো বাংলাদেশের শুরুর ঘণ্টাও ছিল স্বস্তির। টেস্টের তৃতীয় দিনের সকালের শুরুটা বেশ ভালোই করে বাংলাদেশ। এক উইকেটে ৫৫ রানে মাঠে নামে স্বাগতিকরা। দলের বড় সংগ্রহের লক্ষে হাকিয়েছেন ফিফটি। তবে বেশিক্ষণ আর পিচে থাকতে পারেননি উইকেটকিপার ব্যাটার জাকির হাসান।

এরপরই একে একে জাকিরের পথ ধরে গিয়েছেন ড্রেসিংরুমে। তাইজুল ইসলাম, অধিনায়ক নাজমুল শান্ত অভিজ্ঞ সাকিব আল হাসান, লিটন দান কেউই ধরতে পারেননি দলের হাল। সতীর্থদের আসা যাওয়ার মধ্যে ব্যাট হাতে একাই লড়াই চালিয়ে গিয়েছেন মমিনুল হক।

তবে শেষ পর্যন্ত ব্যক্তিগত ৩৩ রানে ফার্নান্দোর বলে লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়ে মাঠ ছাড়লে ১৭৮ রানে অলআউট হয় বাংলাদেশ।

এমএসআরএস