বিশ্ব অর্থনীতি
অর্থনীতি
বিলিয়নিয়ারের তালিকায় শীর্ষে মুম্বাই, পিছিয়েছে বেইজিং
বিলিয়নিয়ারের সংখ্যার দিক থেকে সম্প্রতি এক ধাপ উপরে উঠেছে ভারতের বাণিজ্যিক শহর মুম্বাই। একই সঙ্গে পিছিয়েছে চীনের রাজধানী বেইজিং।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম খবর দ্য হিন্দু জানায়, গবেষণা সংস্থা হুরুন রিপোর্টের 'গ্লোবাল রিচ লিস্ট-২০২৪' অনুযায়ী, বিলিয়নেয়ারের সংখ্যায় এখন এশিয়ার শীর্ষ শহর মুম্বাই। এছাড়া মোট ২৭১ জন বিলিয়নিয়ার নিয়ে বৈশ্বিকভাবে ভারতের অবস্থান তৃতীয়।

৮১৪ জন বিলিয়নিয়ার নিয়ে শীর্ষে আছে চীন। অবশ্য একইসময়ে দেশটিতে ১৫৫ জন বিলিয়নিয়ার তালিকা থেকে ছিটকে পড়েছেন। অন্যদিকে ভারতে নতুন করে ১০০ জন বিলিয়নিয়ার যুক্ত হয়েছেন তালিকায়।

বিলিয়নিয়ার বসবাস করে এমন ১০ শীর্ষ শহরের তালিকায় এবার যুক্ত হয়েছে ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লি। এর মাধ্যমে বৈশ্বিক পর্যায়ে ভারতের আলাদা অবস্থান তৈরির বিষয়টি আরও স্পষ্ট হয়ে উঠছে বলে মন্তব্য করছেন বিশ্লেষকরা।

বিলিয়নিয়ার সমৃদ্ধ ১০টি শহরের মধ্যে আছে নিউইয়র্ক, লন্ডন, মুম্বাই, বেইজিং, সাংহাই, শেনজেন, হংকং, মস্কো, নয়াদিল্লি ও সান ফ্রান্সিসকো।

হুরুনের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ভারত ২০২৩ সালে অর্থনৈতিকভাবে শক্তিশালী বছর পার করেছে। দেশটির অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিও সর্বোচ্চে রেকর্ডে পৌঁছেছে। একইসময়ে বেইজিংকে ছাড়িয়ে এশিয়ার শীর্ষ বিলিয়নিয়ারের শহর হয়েছে মুম্বাই।

বরাবরের মতো শীর্ষ ধনীর তালিকায় প্রথমে আছেন ইলোন মাস্ক। দশম স্থানে আছেন রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজের চেয়ারম্যান মুকেশ আম্বানি।

ধনকুবেরের সংখ্যায় শীর্ষ ১০টি দেশের মধ্যে রয়েছে চীন, যুক্তরাষ্ট্র, ভারত, যুক্তরাজ্য, জার্মানি, সুইজারল্যান্ড, রাশিয়া, ইতালি, ফ্রান্স ও ব্রাজিল। শীর্ষ ১০ বিলিয়নিয়াররা হলেন ইলোন মাস্ক (টেসলা), জেফ বেজোস (অ্যামাজন), বেহনা আহনোঁ (এলভিএমএইচ), মার্ক জাকারবার্গ (মেটা), ল্যারি এলিসন (ওরাকল), ওয়ারেন বাফেট (বার্কশায়ার হ্যাথাওয়ে), স্টিভ বলমার (মাইক্রোসফট), বিল গেটস (মাইক্রোসফট), ল্যারি পেজ

প্রতিবেদনটিতে মোট ৩ হাজার ২৭৯ জন বিলিয়নিয়ারের তথ্য উঠে এসেছে। এ তালিকায় নতুন করে যুক্ত হয়েছেন ১৬৭ জন।


এমএসআরএস