ক্রিকেট
এখন মাঠে

ভারত-অস্ট্রেলিয়ার হাইভোল্টেজ ম্যাচ রাতে

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে ওঠার হাইভোল্টেজ ম্যাচে মুখোমুখি হবে দুই সাবেক বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ভারত ও অস্ট্রেলিয়া। সুপার এইটে টানা দুই ম্যাচ জিতেও নির্ভর নয় টিম ইন্ডিয়া। অন্যদিকে, আফগানিস্তানের কাছে হেরে শঙ্কার মুখে মাইটি অস্ট্রেলিয়া। তাই সেমিফাইনালে ওঠার পথে কঠিন পরীক্ষার মুখোমুখি দুই দল। সোমবার ম্যাচটি শুরু হবে রাত সাড়ে ৮টায়।

বিশ্বকাপের মঞ্চের ক্রিকেট বিশ্বের সামনে অনন্য নজির গড়ে ইতিহাস সৃষ্টি আফগানিস্তানের। ক্রিকেটে যখন আফগানদের ফাগুন। তখন অস্ট্রেলিয়ানদের হৃদয়ে দাউ দাউ করে জ্বলছে আগুন। এই এক হারে বিশ্বকাপ জয়ের পথে অজিরা খেয়েছে বিশাল ধাক্কা। বিশ্বকাপের ফাইনালের ওঠার ভাবনা দূরে থাক। সেমিফাইনালের স্বপ্ন বাঁচিয়ে রাখতে কঠিন পরীক্ষার সামনে মাইটি অস্ট্রেলিয়া।

সুপার এইটে গ্রুপ 'এ'তে চারটি দলেরই সম্ভানা আছে সেমিফাইনালে খেলার। যদিও, দুই ম্যাচে কোন জয় নেই বাংলাদেশেরও আছে ক্ষীন সম্ভানা। আপাতত মহাভাবনায় মিচেল মার্শের অস্ট্রেলিয়া। নেট রান রেটে ভারতের পরে থাকলেও, বিরাট কোহলিদের হারাতে তো হবেই। সঙ্গে প্রার্থনা করতে হবে। বাংলাদেশের কাছে যেন হেরে যায় আফগানরা। তবেই নিরাপদে সেমিফাইনালে জায়গা করে নেবে ২০২১ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। অন্যদিকে, দুই ম্যাচ জিতে স্বস্তিতে নেই টিম ইন্ডিয়া। তারা যদি অজিদের কাছে বড় ব্যবধানে হারে আর বাংলাদেশের বিপক্ষে আফগানিস্তান যদি বিশাল ব্যবধানে জেতে। সেক্ষেত্রে কিন্তু কপাল পুড়বে রোহিত শর্মা, পান্ডিয়াদের।

তবে ভারত- অস্ট্রেলিয়ার এই প্রতাপে ম্যাচে এতো সমীকরণের মাড়প্যাচে যেতে চায় না কোহিলরা। তাদের স্লোগান একটাই জয় চাই জয় ভিন্ন পথ নাই। তার ওপর কয়েকমাস আগে ঘরের মাটিতে ওয়ানডে বিশ্বকাপ হারের দগদগে হারের ক্ষতের যন্ত্রণার শোধ নিতে মুখি টিম ইন্ডিয়া। তাই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের হিসেবই শুধু মেলাতে মাঠে নামবে না ভারত-অস্ট্রেলিয়া। থাকবে আপোষহীন দারুতে এক লড়াই। যে উত্তাপে ম্যাচ উপভোগে চাতক পাখির মতোই চেয়ে প্রতীক্ষা ক্রিকেট রোমান্টিকরাও।

ইএ

এই সম্পর্কিত অন্যান্য খবর