ক্রিকেট
এখন মাঠে
টাইগ্রেসদের সঙ্গে ক্রিকেট খেললেন ডোনাল্ড লু
আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দারুণ কিছু করবে। এমনটাই প্রত্যাশা করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়া বিষয়ক সহকারী মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডোনাল্ড লু। অন্য আসরের চেয়ে এবারের বিশ্বকাপে ইতিবাচক ফলাফল করবে বলে বিশ্বাস করেন নারী দলের অধিনায়ক জ্যোতি।

বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের হয়ে ইনিংসে উদ্বোধন করতে নামেন মার্কিন রাষ্ট্রদূত পিটার হাস ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ডোনাল্ড লু। যে দেশে বেসবল, রাগবি, ফুটবল জনপ্রিয়তার তুঙ্গে। সেখানে ক্রিকেটের জনপ্রিয়তা তলানিতে থাকবে এটাই স্বাভাবিক।

তবে দুই মার্কিন কর্মকর্তা পিটার হাস ও ডোনান্ড লু বাংলাদেশে এসে অনুভব করতে পেরেছেন এদেশের মানুষের ক্রিকেটের প্রতি আবেগ, ভালোবাসা কতোটা গভীর। বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলকে শুভকামনা জানাতে টাইগ্রেসদের সাথে ক্রিকেট খেলা উপভোগ করলেন তারা। সেই সাথে সাকিব শান্তদের জানান শুভকামনা।

ডোনাল্ড লু বলেন, 'বাংলাদেশ ক্রিকেট পাগল দেশ। তাদের সাথে ক্রিকেটে অংশ নিতে পেরে ভালো লাগছে। আমরা এবার ছেলেদের ক্রিকেট বিশ্বকাপ হোস্টিং করছি। আমরা খুবই এক্সাইটেড। আশা করি, বাংলাদেশ ভালো করবে।'

সেপ্টেম্বর অক্টোবরে ঘরের মাঠে অনুষ্ঠিত হবে নারীদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। এ নিয়ে দারুণ রোমাঞ্চিত জ্যোতিরা। তার আগে জুনে ছেলেদের বিশ্বকাপ যুক্তরাষ্ট্র ও ওয়েস্ট ইন্ডিজে। এ আসরে টাইগাররা সকলের প্রত্যাশা প্রাপ্তি মিলাবে এমন আশা টাইগ্রেস অধিনায়ক নিগার সুলতানা জ্যোাতি ও টাইগারদের সাবেক অধিনায়ক হাবিবুল বাশার সুমন।

জ্যোতি বলেন, 'বাংলাদেশ যেখানেই খেলুক না কেন আমরা সবসময় বেস্ট উইশই জানাই। যেহেতু এবার সিনিয়র কিছু খেলোয়াড় আছেন যারা ভালো ছন্দে আছেন। আমাদের দলের পক্ষ থেকে সবার জন্য শুভেচ্ছা।'

হাবিবুল বাশার বলেন, 'টিম হয়ে গেছে। আমার মনে হয় এটাই সেরা দল। দু-একটি জায়গা নিয়ে আমরা কথা বলতেই পারতাম। আমরা একজন বোলিং অলরাউন্ডার অনেকদিন হলেই খুঁজছিলাম। সাইফউদ্দিন অনেকদিন ইনজুরির কারণে বাইরে ছিল। সাইফুদ্দিন অলরেডি ফিট। সেক্ষেত্রে সাইফুদ্দিনকে বিবিচনা করা যেন কারণ তার অলরাউন্ডিং পরফর্মমেন্স আমরা কাজে লাগাতে পারতাম।'

বাংলাদেশ দলকে শুভকামনা জানানোর এই আয়োজনে দুই মার্কিন কর্মকর্তাকে বাংলাদেশ জাতীয় দলের জার্সি ক্যাপ ও হেলমেট উপহার দেন জ্যোতি।

এমএসআরএস