সরুয়া
জীবনযাপন
এই খাবার খেতে অপেক্ষা করতে হবে ৪৩ বছর!
আপনি যদি এক বক্স হিমায়িত কোবে গরুর ক্রোকেটস অর্ডার করেন, সে মাংস আপনি হাতে পাবেন ৪৩ বছর পর। এই ক্রোকেট পাওয়া যাবে জাপানের পশ্চিমাঞ্চলের তাকাসাগো শহরের আসাহিয়া নামে এক দোকানে।

ক্রোকেট এক ধরনের রোল অথবা চপ যা সবজি ও কিমা করা মাংস বা মাছ পাউরুটির গুঁড়োতে মুড়িয়ে ডুবো তেলে ভেজে তৈরি করা হয়।

১৯২৬ সালে প্রতিষ্ঠিত আসাহিয়াতে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর থেকে অন্যান্য মাংসের সঙ্গে বিক্রি হয় গরুর মাংসের ক্রোকেট। ২০০০ সালের শুরুর দিকে ভাজা আলু এবং গরুর মাংসের ডাম্পলিং প্রথম ইন্টারনেটের মাধ্যমে পরিচিতি পায়। জনপ্রিয়তা বাড়ার পর ক্রেতাদের এখন দীর্ঘ অপেক্ষার সম্মুখীন হতে হয়।

আসাহিয়া যেই চার ধরনের কোবে গরুর ক্রোকেট বিক্রি করে, তার মধ্যে সবচেয়ে বিখ্যাত 'এক্সট্রিম ক্রোকেটস'। দোকানটিতে 'প্রিমিয়ার কোবে বিফ ক্রোকেট' পাওয়ার জন্য বর্তমানে চার বছরের অপেক্ষার তালিকা রয়েছে। আসাহিয়ার তৃতীয় প্রজন্মের স্বত্বাধিকারী নিত্তা জানান, ১৯৯৯ সালে অনলাইনের মধ্য দিয়ে নিজেদের পণ্য বিক্রি শুরু করে তারা। ১৯৯৪ সালে বাবার কাছ থেকে উত্তরাধিকার সূত্রে এই দোকানের মালিন হন তিনি।

কয়েক বছর ধরে ই-কমার্স নিয়ে পরীক্ষা করার পর তিনি বুঝতে পারেন যে, গ্রাহকরা অনলাইনে প্রাইম বিফের জন্য মোটা অংকের অর্থ দিতে দ্বিধাবোধ করছেন। তখনই তিনি এই সাহসী সিদ্ধান্ত নেন। নিত্তা বলেন, 'শুরুর দিকে এক্সট্রিম ক্রোকেটস বিক্রি করা হয়েছে প্রতি পিস ২৭০ জাপানিজ ইয়েন বা ১.৮০ মার্কিন ডলারে, যেখানে এটি বানানোর জন্য ব্যবহৃত গরুর মাংসের দামই ছিল প্রতি পিস ৪০০ জাপানিজ ইয়েন বা ২.৭০ মার্কিন ডলার।'

আর্থিক ক্ষতি কমাতে শুরুর দিকে প্রতি সপ্তাহে মাত্র ২০০ ক্রোকেট তৈরি করা হতো। সেই সময় থেকেই দোকানের সঙ্গে স্থানীয় গরুর মাংস উৎপাদনকারীদের যোগাযোগ ছিল। তাই প্রদেশের বাইরে থেকে কোন পণ্য কিনতে হয়নি।

২০০০ সালের প্রথম দশকের গোড়ার দিকে যখন আসাহিয়ার ক্রোকেট সম্পর্কে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়, তখন তাদের জনপ্রিয়তা আকাশচুম্বী হয়ে যায়। এখন সপ্তাহে ২০০ ক্রোকেটের পরিবর্তে প্রতিদিন ২০০ ক্রোকেট তৈরি করছে তারা। এক্সট্রিম ক্রোকেটসের প্রতিটি বাক্সে পাঁচ পিস ক্রোকেট থাকে, বিক্রি হয় ২৭৫০ জাপানিজ ইয়েনে বা ১৮ দশমিক ২০ মার্কিন ডলারে।

বর্তমানে তাদের দুটি দোকান রয়েছে। অপেক্ষা করতে না চাইলে পর্যটক বা গ্রাহকরা তাদের কোবের দোকানে যেতে পারেন। সেখানে 'টর রোড' এবং 'কিতানোজাকা' নামে দুই ধরনের ক্রোকেট তৈরি করা হয় যেগুলো তারা কিনে খেতে পারবেন। ক্রোকেটগুলোর নাম কোবের দোকানের কাছাকাছি রাস্তার নাম অনুযায়ী দেয়া হয়েছে।

'কিতানোজাকা' চর্বিহীন গরুর মাংস ব্যবহার করে তৈরি করা হয় এবং প্রতিটির দাম ৩৬০ জাপানিজ ইয়েন বা ২ দশমিক ৪০ মার্কিন ডলার।

এমএসআরএস