যুদ্ধ , মধ্যপ্রাচ্য
বিদেশে এখন
আবারও রাফা ও জাবালিয়ায় সেনা অভিযান জোরদার
দক্ষিণাঞ্চলে শরণার্থী শিবির রাফা আর উত্তরাঞ্চলে জাবালিয়ায় সেনা অভিযান আরও জোরদার করেছে ইসরাইল। যেন হামলা না হয়, সে লক্ষ্যে ইসরাইলে বোমা সরবরাহ স্থগিত করলেও কংগ্রেসের অনুমোদনের জন্য আবারও ১০০ কোটি ডলারের সামরিক সহায়তার প্যাকেজ পাঠিয়েছে মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তর।

যুক্তরাষ্ট্রসহ আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সতর্কবার্তাকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে উপত্যকার সবচেয়ে বড় শরণার্থী শিবির রাফায় হামলা বাড়িয়েছে ইসরাইল। বিমান আর বোমা হামলায় রাফা ছাড়ছেন লাখ লাখ শরণার্থী। মঙ্গলবারও (১৪ মে) রাফায় প্রবেশ করেছে ইসরাইলের যুদ্ধযান। চীনের সংবাদ মাধ্যম জানায়, ইসরাইলি ট্যাঙ্কগুলো থেকে সেনাদের সঙ্গে সশস্ত্র গোষ্ঠীর ভয়াবহ সংঘাত চলছে। তবে এখনও পরিস্কার হয়নি কবে নাগাদ রাফায় পুরোদমে অভিযান শুরু হবে।

ইসরাইলি সেনাবাহিনীর দাবি, মিশর সীমান্তে হামাসকে লক্ষ্য করে হামলা চালাচ্ছে তারা। মঙ্গলবার রাতে আইডিএফ জানায়, জাবালিয়া শরণার্থী শিবির থেকেও শরণার্থীদের সরে যেতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

চায়না মিডিয়া গ্রুপের সংবাদকর্মী ঝাও বিং বলেন, 'রাফার রেড জোনে প্রবেশ করছে ইসরাইলি সেনারা। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, এখানে ইসরাইলি বাহিনীর সঙ্গে হামাসের সংঘাতের কথা। এখনও নিশ্চিত নই, এখানে পুরোদমে সেনা অভিযান শুরু হবে কিনা। ইসরাইল দাবি করছে, তারা হামাসের ঘাঁটি লক্ষ্য করে হামলা চালাচ্ছে। যদিও ফিলিস্তিনিদের দাবি, আবাসিক ভবন লক্ষ্য করে হামলা হচ্ছে। ফিলিস্তিনিদের মধ্যে ক্ষোভ বাড়ছে।'

ইসরাইলি সেনাবাহিনীর হামলায় রাফা আর জাবালিয়ায় বাড়ছে হতাহতের সংখ্যা। এদিকে, রাফায় আইডিএফ'এর সঙ্গে তুমুল সংঘাতের ভিডিও প্রকাশ করেছে হামাস। রাফায় এই সংঘাতের মধ্যেই ইসরাইলের জন্য আরও ১০০ কোটি ডলারের সামরিক সহায়তার প্যাকেজ কংগ্রেসে অনুমোদনের জন্য পাঠিয়েছে হোয়াইট হাউজ। সংবাদ মাধ্যম রয়টার্স জানায়, এই সহায়তার মধ্যে আছে ট্যাঙ্ক, মর্টার, যুদ্ধযান। অথচ রাফায় সেনা অভিযানের বিরোধিতা করে গেলো সপ্তাহেই বোমা সরবরাহ স্থগিত করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

ফিলিস্তিনিদের সমর্থন করে আর যুক্তরাষ্ট্রের ইসরাইলকে সমর্থনের বিরোধিতা করে মঙ্গলবারও বিক্ষোভ হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন স্থানে। ইসরাইল গাজায় হত্যাযজ্ঞে গুগলের প্রযুক্তি ব্যবহার করছে, উঠেছে এমন অভিযোগও।

আতঙ্কে কেউ পায়ে হেঁটে, কেউ গাধার পিঠে চড়ে পালাচ্ছেন রাফা আর জাবালিয়া ছেড়ে। পশ্চিম তীরে গাজামুখী ত্রাণবাহী ট্রাক আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। উপত্যকার মানুষগুলো ত্রাণের অভাবে পার করছে কঠিন সময়।

ত্রাণ সরবরাহকারীরা বলছেন, অন্তত ৭০ টি ত্রাণবাহী ট্রাককে লক্ষ্য করে হামলা চালানোর পরিকল্পনা ছলো দখলদারদের। যদিও ইসরাইল বলছে, এই ঘটনায় জড়িতদের খুঁজে বের করতে তদন্ত চলছে। রাফা সীমান্ত দিয়ে এখনও বন্ধ আছে ত্রাণ সরবরাহ।

এই অবস্থায় রাফায় সেনা অভিযান নিয়ে দ্রুত পদক্ষেপ নিতে দক্ষিণ কোরিয়ার আবেদনের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার (১৬ মে) আর শুক্রবার (১৭ মে) শুনানি অনুষ্ঠিত হবে আন্তর্জাতিক ন্যায়বিচার আদালতে। কাতার জানিয়েছে, যুদ্ধবিরতি আলোচনা স্থবির হয়ে পড়েছে। গেলো ৭ অক্টোবর শুরু হওয়া এই সংঘাতে এখন পর্যন্ত ৩৫ হাজারের বেশি ফিলিস্তিনির প্রাণ গেছে।

এমএসআরএস