বিদেশে এখন

নায়াগ্রা দেখতে বছরে কানাডার অংশে ভিড় ১ কোটির বেশি পর্যটকের

পৃথিবীর আশ্চর্য সৌন্দর্য নায়াগ্রা দেখতে প্রতি বছর কানাডার অংশে ভিড় করেন ১ কোটি ২০ লাখের বেশি পর্যটক। জুন থেকে শুরু হওয়া এই মৌসুম চলে বেশ কয়েক মাস। বহু বাংলাদেশিও যান মনোহর পরিবেশ উপভোগে। এই সময় প্রায় দুইশ' কোটি ডলারের ব্যবসা হয়ে থাকে।

বিরামহীন গর্জনে বয়ে চলেছে বিশাল জলরাশি, আছড়ে পড়ছে ১৬৭ ফুট নিচে। শত বছরের বিস্ময় নায়াগ্রা জলপ্রপাতের কাছে গিয়ে একবার দাঁড়ালে শরীরে জাগে শিহরণ। সৌন্দর্যের এক অনন্য মাত্রা এই ঝর্ণাধারা।

নায়াগ্রা জলপ্রপাত যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্ক ও কানাডার অন্টারিও প্রদেশের মধ্যে অবস্থিত। একসময় এই অঞ্চল কয়েক কিলোমিটার বরফে ঢাকা ছিল। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে উষ্ণতা বাড়তে থাকায় বরফ গলতে শুরু করে আর গ্রেট লেকস বেসিনে প্রচুর পানি জমতে থাকায় এবং লেক ইরি, নায়াগ্রা নদী আর লেক অন্টারিও থেকে আসা পানি মিলে সৃষ্টি হয় এই সুবিশাল জলপ্রপাত। প্রতি সেকেন্ডে ৮৫ হাজার ঘনফুট পানি বয়ে যায় নায়াগ্রায়

নায়াগ্রার বিশাল জলপ্রপাতের সাথে বোনাস হিসেবে দেখা মেলে বিশাল রংধনুর। এখানে বেড়ানোর জন্য রৌদ্রজ্জ্বল যেকোনো একটি দিন বেছে নিলে দর্শনার্থীদের চোখে নিশ্চিতভাবেই ধরা দেবে রংধনুর নানা রঙ। সুযোগ রয়েছে নৌকায় চড়ে জলপ্রপাতের নিচের অংশে ভ্রমণেরও। জুন থেকে সেপ্টেম্বর- বছরের এই চার মাস নায়াগ্রা দর্শনের সেরা সময়। পাহাড়, সবুজ অরণ্য আর জলের নৃত্য দেখার ক্ষণ তাই এখনই।

দর্শনার্থীদের একজন বলেন, 'খুবই খুশি আমরা। দেখুন অনেক অনেক মানুষ এসেছেন।'

আরেকজন বলেন, 'এখানে ১০ থেকে ২০ বার এসেছি। যতবারই আসি, নতুন লাগে।'

কেবল সৌন্দর্যভূমি হয়, নায়াগ্রার পানির স্রোত জলবিদ্যুতেরও বড় অংশ। কানাডার অর্থনীতিতে তাই উল্লেখযোগ্য স্থান নায়াগ্রার।

ইএ

এই সম্পর্কিত অন্যান্য খবর