প্রযুক্তি সংবাদ
তথ্য-প্রযুক্তি

সাইবার জগত ঘিরে বাড়ছে নিরাপত্তা ঝুঁকি

অন্যান্য বছরের তুলনায় গতবছর দেশে র‌্যানসমওয়্যার ভাইরাসের আক্রমণ ছিল বেশি। এছাড়া ডিডস ভাইরাস, ফিশিং লিংক ও স্পামিংয়ের মাধ্যমে সাইবার জগত ঘিরে ক্রমাগত বাড়ছে নিরাপত্তা ঝুঁকি। মোকাবিলায় আধুনিক ও আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স সমৃদ্ধ সিকিউরিটি আনছে কোম্পানিগুলো।

র‌্যানসমওয়্যার এক ধরনের কম্পিউটার প্রোগ্রাম। যা ব্যবহারকারীর অগোচরে কম্পিউটারে প্রবেশ করে নির্দিষ্ট ফাইল কিংবা সম্পূর্ণ সিস্টেম লক করে ফেলে। বিনিময়ে হ্যাকার গ্রুপ দাবি করে অর্থ। দিতে অস্বীকৃতি জানালেই গুরুত্বপূর্ণ ফাইল কিংবা সিস্টেম নষ্ট করার হুমকি দেয় হ্যাকার গ্রুপ। বাংলাদেশেও বাড়ছে এই ভাইরাসের আক্রমণ।

গত বছরের মার্চে র‌্যানসমওয়্যারে আক্রান্ত হয়ে কার্যত অচল হয়ে পড়ে রাষ্ট্রীয় বিমান সংস্থার ডিজিটাল কার্যক্রম। এছাড়া একই ভাইরাসের মাধ্যমে ২০২১ সালে সুপার শপ স্বপ্ন-এর ডিজিটাল সিস্টেম হ্যাক করে ১৮ লাখ টাকা মূল্যের ডিজিটাল ভাউচার তৈরি করে অর্থ হাতিয়ে নেয় হ্যাকার গ্রুপ।

র‌্যানসমওয়্যার ছাড়াও ডিডস ভাইরাস, স্প্যামিং, ফিসিং লিংকের মাধ্যমেও দেশে বাড়ছে সাইবার আক্রমণ । এক গবেষণায় দেখা গেছে, শুধুমাত্র ২০২৩ সালে ১১.৪ মিলিয়ন সাইবার ঝুঁকি অ্যাটাক হয়েছে দেশে। সাইবার স্পেসে ৩৩.৩ মিলিয়ন ঝুঁকিপূর্ণ ঘটনা সনাক্ত হয়, আর দেশের হোস্টকৃত সার্ভার থেকে আক্রমণের ৭৮ হাজার ঘটনা সনাক্ত হয়।

এ অবস্থায় শুধু ব্যক্তিপর্যায়ে ছাড়াও সকল প্রতিষ্ঠানে সাইবার স্পেসকে নিরাপদ করা জরুরি হয়ে পড়েছে। আর নিরাপত্তার জন্য জরুরি আধুনিক ও আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স সমৃদ্ধ সিকিউরিটি প্রোডাক্ট। আজ (বৃহস্পতিবার, ২ মে) গুলশানের এক হোটেলে ক্যাস্পারস্কি নেক্সট নামে এমন এক চতুর্থ প্রজন্মের সাইবার নিরাপত্তা নিশ্চিত ব্যবস্থা উদ্বোধন করা হয়। যেকোনো সাইবার নিরাপত্তার ঝুঁকি সম্পর্কে আগেভাগেই অবগত করবে এটি।

শুধু ঝুঁকি নির্দেশনা নয়, ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে সকল সাইবার বিষয়ের সমাধানও মিলবে। ইডিআর ফাউন্ডেশন, ইডিআর অপটিমাম ও এক্সডিয়ার এক্সপার্ট নামে তিন স্তরে কাজ করবে ক্যাস্পারস্কি নেক্সট।

এমএসআরএস

এই সম্পর্কিত অন্যান্য খবর