বিশ্ব অর্থনীতি
অর্থনীতি
২০২৪ সালেও বাড়বে বৈশ্বিক ঋণ
২০২৩ সালে বিশ্বের মোট ঋণ বেড়ে রেকর্ড ৩১৩ লাখ কোটি ডলারে পৌঁছেছে। ইনস্টিটিউট অব ইন্টারন্যাশনাল ফাইন্যান্সের প্রতিবেদন বলছে, উন্নয়নশীল দেশগুলোর ঋণ প্রবৃদ্ধির তুলনায় অনেক বেড়ে গেছে।

মহামারি শেষে যুদ্ধ, সুদের হার বেড়ে যাওয়া ও ঊর্ধ্বমুখী মূল্যস্ফীতির বোঝা টানছে উন্নত, উন্নয়নশীল আর অনুন্নত সব দেশ। প্রভাব পড়েছে বিশ্বের আর্থিক খাতে। সারাবিশ্বে ঋণ অপ্রত্যাশিতভাব বাড়ছে। আইআইএফ'এর গ্লোবাল ডেট মনিটর বলছে, এক দশক আগে এই ঋণ ছিলো ২১০ ট্রিলিয়ন ডলার।

বিশ্লেষকরা জানিয়েছেন, বিশ্বব্যাপী ঋণ ২০২২ সালে প্রায় ৭ লাখ কোটি ডলার কমেছে। পরিসংখ্যান অনুযায়ী বৈশ্বিক ঋণ ২০২৩ সালের শেষ প্রান্তিকে ১৫ লাখ কোটি ডলারের বেশি বেড়েছে।

আইআইএফ জানায়, বিগত ১০ বছরে মোট ঋণের প্রায় ৫৫ শতাংশ এসেছে উন্নত অর্থনীতির দেশগুলো থেকে। এর মধ্যে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, ফ্রান্স ও জার্মানি। অন্যদিকে চীন, ভারত ও রাশিয়ার মতো উন্নয়নশীল দেশগুলোয় ঋণ বেড়েছে।

উন্নত দেশগুলোর মোট ঋণ গেল বছর ২০৮ লাখ কোটি ডলারে উন্নীত হয়েছে। আর উন্নয়নশীল দেশগুলোর মোট ঋণ পৌঁছেছে ১০৪ লাখ কোটি ডলারে। একই সময় বিভিন্ন দেশের সরকারি ঋণ ৮৯ লাখ কোটি ডলার হয়েছে।

বিশ্লেষকরা বলছেন, ২০২৪ সালেও সারাবিশ্বে ঋণ নেয়ার প্রবণতা অব্যাহত থাকবে। ভূ-রাজনৈতিক অস্থিরতার কারণে ঝুঁকির মধ্যেই থাকবে বিশ্ব অর্থনীতি।

এভিএস