দেশে এখন
প্রায় ৯ ঘণ্টার চেষ্টায় নিয়ন্ত্রণে ডেমরার আগুন
দীর্ঘ সাড়ে ৮ ঘণ্টার চেষ্টার পর আজ শুক্রবার (২২ মার্চ) সকাল ৮টায় রাজধানী ঢাকার ডেমরা এলাকার একটি চার তলা ভবনের তৃতীয় তলায় কাপড়ের গোডাউনে লাগা আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে।

বৃহস্পতিবার (২১ মার্চ) দিবাগত রাত ১১টা ৩০ মিনিটে এ আগুন লাগে বলে জানিয়েছে ফায়ার সার্ভিস।

ঘটনাস্থলের আশেপাশে পানি না থাকায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে বেশি সময় লেগেছে বলে জানিয়েছে সংস্থাটি।

পুরো ভবনে দাহ্য পদার্থ ছিল। মোল্লা কর্টেজ নামের এ ভবনে মূলত স্পোর্টস সামগ্রী ফুটবল, ট্রেডমিল, বল, ব্যাট ও ব্যায়ামের অন্য উপকরণ ছিল।

দুর্ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়েছিলেন ফায়ার সার্ভিসের পরিচালক (প্রশিক্ষণ, পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) লেফটেন্যান্ট কর্নেল মো. রেজাউল করিম।

তিনি বলেন, ‘ভবনটিতে স্টোরেজ (গুদাম) নীতিমালা মানা হয়নি। এ কারণে আগুন নিয়ন্ত্রণে বেগ পেতে হয়। তবে ফায়ার সার্ভিস কর্মীদের চেষ্টায় আগুন আর নতুন করে ছড়ানোর সম্ভাবনা নেই।’

মো. রেজাউল করিম বলেন, ‘ওই ভবনে পানির রিজার্ভ ট্যাংক নেই, চলাচলের সিঁড়িও বেশ সংকীর্ণ। আশপাশে পানি না থাকায় ড্রেনের পানি দিয়ে আগুন নেভানোর চেষ্টা করা হয়। ঢাকা ওয়াসাও পানি দিয়েছে। ভবনটির পূর্ব ও পশ্চিম দুপাশে লাগোয়া আরো ভবন থাকায় ভেতরে ঢুকতেও সমস্যা হচ্ছে।’

ফায়ার সার্ভিসের কোনো ব্যর্থতা নেই উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘এ ভবনটি ঝুঁকিপূর্ণ। ভবনের কাঠামোগত শক্তি কমে গেছে। কয়েক জায়গায় ছাদ ফেটে গেছে। যে কোনো সময় ভেঙে পড়তে পারে।’

রাতে প্রথমে ফায়ার সার্ভিসের ৫টি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করে। পরবর্তীতে আরও ৫টি ইউনিট এসে যোগ দেয়। এরপর আগুন নিয়ন্ত্রণে না আসায় বাংলাদেশ নৌ বাহিনীরও ২টি ইউনিট যোগ দেয় নিয়ন্ত্রণ কার্যক্রমে।

ফায়ার সার্ভিস ছাড়াও আগুন নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে ওয়াসা, নৌ বাহিনী, পুলিশ, ব্যবসায়ী, এনএসআই ও বিভিন্ন সংগঠনের ভলেন্টিয়ারা।

এমএসআরএস