ক্রিকেট
এখন মাঠে
প্রথম ওয়ানডেতে বড় ব্যবধানে হেরেছে বাংলাদেশ নারীরা
নারীদের দ্বিপাক্ষিক সিরিজের প্রথম ম্যাচে ১১৮ রানের বড় ব্যবধানে হেরেছে বাংলাদেশ। শুরুতে ব্যাট করে অজিরা সংগ্রহ করে ২১৩ রান। জবাব দিতে নেমে দায়িত্বজ্ঞানহীন ব্যাটিংয়ে মাত্র ৯৫ রানে অলআউট হয় বাংলাদেশের মেয়েরা।

আলস্যে ভরপুর বাংলাদেশের বিপরীতে উজ্জীবিত অস্ট্রেলিয়া। মিরপুরে প্রথম ওয়ানডেতে স্বাগতিকদের উড়িয়ে দিল প্রথমবার এদেশে খেলতে নামা অজি মেয়েরা।

৫ স্পিনার আর ১ পেসার নিয়ে একাদশ সাজানো বাংলাদেশ টস জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়। মাত্র ৭৮ রানে সেরা ৫ ব্যাটসম্যানকে তুলে নিয়ে আস্থার প্রতিদান দেন বোলাররা। অ্যালিসা হিলি, এলিসা পেরি কিংবা বেথ মুনির মত বিশ্বসেরা ব্যাটাররা টিকতে পারেননি বেশিক্ষণ।

তবে এরপর ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নেয় অজি ব্যাটাররা। দুই অলরাউন্ডার গার্ডনার আর সাদারল্যান্ড মিলে দলের হাল ধরেন। ম্যাচের একমাত্র ফিফটি তুলে নেন সাদারল্যান্ড। আর ৯ম ব্যাটসম্যান এ্যালেনা কিংয়ের ৪৬ রানের ঝড়ো ইনিংসে অজিরা স্কোরবোর্ডে জমা করে ২১৩ রান।

এত রান তাড়া করে জয়ের অভ্যাস নেই বাংলাদেশের মেয়েদের। তার ওপর অজিদের বিশ্বমানের বোলিং লাইনআপের সামনে সেটি আরও কঠিন। তবে তারচেয়েও কঠিন হয়ে দাঁড়ায় যখন বাংলাদেশের মেয়েরা একের পর এক আত্মাহুতি দিতে থাকেন। ইনিংসের দ্বিতীয় বলেই ফারজানার উইকেট হারানোর পর ফাহিমা, রিতু মনি আর অধিনায়ক নিগার সুলতানা জ্যোতির তিন রান আউটে বিপদে পড়ে যায় বাংলাদেশ। বিশেষ করে অধিনায়ক জ্যোতির রান আউটটাকে রীতিমত কান্ডজ্ঞানহীন বলতে হবে। চরম অলসতায় ব্যাটটা যেন ক্রিজে রাখতে ইচ্ছে করছিল না তার!

বাংলাদেশের মাত্র ৩ জন ব্যাটসম্যান দুই অংকের ফিগার ছুঁতে পেরেছেন। তাও জ্যোতির ২৭ রানের পর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৩ রান এসেছে অতিরিক্তের খাত থেকে। স্বাগতিকদের ব্যাটিংয়ের সারসংক্ষেপ এটিই। আর এমন ব্যাটিংয়ের পর জয়ের আশা করাও বোকামি।


এমএসআরএস