বিদেশে এখন
রাশিয়া ও চীন একে অপরের সমর্থনে ‘একে অপরের পাশে’ দাঁড়াবে
মস্কো এবং বেইজিং একে অপরকে সমর্থন করে ‘একে অপরের পাশে’ দাঁড়াবে। রাশিয়ায় চীনের রাষ্ট্রদূত ঝাং হানহুই তাস’কে এক সাক্ষাৎকারে একথা বলেছেন।

চীনা রাষ্ট্রদূত বলেন, ভ্লাদিমির পুতিন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পদে পুনঃনির্বাচিত হওয়ায় সোমবার চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং তাকে অভিনন্দন জানিয়েছেন। এটি দুই নেতার মধ্যে দৃঢ় বন্ধুত্ব এবং পারস্পরিক রাজনৈতিক বিশ্বাসকে প্রতিফলিত করে। যে বিষয়গুলো তাদের মূল জাতীয় স্বার্থকে প্রভাবিত করে সে বিষয়ে দেশ দু’টি একে অপরকে দৃঢ়ভাবে সমর্থন করে। অন্যদিকে ‘একে অপরের পাশে’ থাকার কৌশলগত সহযোগিতা আরও শক্তিশালী হয়ে উঠছে।

তিনি জোর দিয়ে বলেন, শি জিনপিং এবং ভ্লাদিমির পুতিনের কৌশলগত দিকনির্দেশনার অধীনে, ব্যাপক অংশীদারিত্ব এবং কৌশলগত সহযোগিতার রাশিয়া-চীনা সম্পর্ক এখন ‘পুরো ইতিহাসের সবচেয়ে অনুকূল সময়ে প্রবেশ করেছে।’

রাষ্ট্রদূত বলেন, ‘দ্বিপাক্ষিক লেনদেন ২৪০ বিলিয়ন ডলারের সীমা অতিক্রম করেছে। ‘মেইড ইন চায়না’ ট্রেডমার্ক ক্রমশ জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। রাশিয়ান ভোক্তাদের মধ্যে আরও বেশি বিশ্বাস অর্জন করছে। রাশিয়ান কৃষি পণ্য এবং সামুদ্রিক খাবারের জন্য চীনে প্রচুর চাহিদা রয়েছে।’

চীনা কূটনীতিকের মতে, দুই দেশের মধ্যে মানবিক সহযোগিতাও বাড়ছে। দুই দেশ সংস্কৃতি, শিল্প, পর্যটন এবং স্বাস্থ্যসেবার ক্ষেত্রেও তাদের যোগাযোগ বিস্তৃত করছে।

রাষ্ট্রদূত বলেন, ‘বহুমুখী রুশ-চীনা সহযোগিতার গতিশীল উন্নয়ন দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের উন্নয়নের জন্য একটি শক্ত ভিত্তি তৈরি করেছে।’ বাসস

এওয়াইএইচ