অন্য সব খেলা
এখন মাঠে
অলিম্পিকের উদ্বোধনী প্যারেডে থাকছে না রাশিয়ার পতাকা
প্যারিসে গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিক গেমসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের প্যারেডে পতাকা বহন করতে পারবে না রাশিয়া ও বেলারুশের অ্যাথলেটরা। এমনটাই জানিয়েছে আন্তর্জাতিক অলিম্পিক পরিচালক জেমস ম্যাকলিওড। তবে নিরপেক্ষভাবে অংশ নেয়া এই দু'দেশের ক্রীড়াবিদরা সাদা পতাকা বহন করতে পারবেন।

ইউক্রেনে রাশিয়ার আগ্রাসন শুরুর পর থেকেই পশ্চিমা বিশ্বসহ অনেক দেশের নিষেধাজ্ঞার কবলে পড়েছে রাশিয়া। ইউক্রেনের ওপর আগ্রাসন থামাতে পরবর্তীতে একাধিক আন্তর্জাতিক ক্রীড়া সংস্থাও নিষেধাজ্ঞা দেয় রাশিয়ার ওপর। এর মধ্যে অন্যতম ছিল অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশন, যেখানে রাশিয়া ও বেলারুশের সব অ্যাথলেটদের নিষিদ্ধ করা হয়।

পরবর্তীতে অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশন নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়ে নিরপেক্ষভাবে দুই দেশের ক্রীড়াবিদদের অংশগ্রহণের জন্য আমন্ত্রণ জানায়। তবে এবার অলিম্পিক কমিটি থেকে জানানো হয়, নিরপেক্ষভাবে অংশ নিলেও প্যারেডে পতাকা বহন করতে পারবে না দুুইটি দেশের ক্রীড়াবিদরা। যদিও তারা চাইলে সাদা পতাকা নিয়ে প্যারেডে যোগ দিতে পারবে।

আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির পরিচালক জেমস ম্যাকলিওড বলেন, ‘অলিম্পিক কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, গ্রীষ্মের অলিম্পিক গেমসে রাশিয়া এবং বেলারুশের পতাকা বহন করা যাবে না। তবে, নিরপেক্ষভাবে অংশ নেয়া অ্যাথলেটরা চাইলে সাদা পতাকা বহন করতে পারবে।’

মূলত, এই দুই দেশের অ্যাথলেটরা ব্যক্তিগতভাবে অংশ নেয়ায় সাদা পতাকা বহনের অনুমতি পাচ্ছে। যদিও অলিম্পিকের এই সিদ্ধান্তের তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখ্যপাত্র মারিয়া জাখারোভা। অলিম্পিক কমিটির এই সিদ্ধান্ত অবৈধ বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখ্যপাত্র মারিয়া জাখারোভা বলেন, ‘অলিম্পিক কমিটির এই সিদ্ধান্ত অবৈধ, অবিচার এবং অগ্রহণযোগ্য। তাদের এই সিদ্ধান্ত একতরফা, এর ফলে খেলাধুলার অংশগ্রহণে গ্রহণযোগ্যতা হারাবে।’

অলিম্পিক কমিটির তথ্য অনুযায়ী, এখন পর্যন্ত রাশিয়ার ১২ এবং বেলারুশের ৭ প্রতিযোগী চূড়ান্ত পর্বে জায়গা করে নিয়েছেন। তবে সব মিলিয়ে রাশিয়া থেকে ৩৬ এবং বেলারুশ থেকে ২২ জন অ্যাথলেট অংশ নেবেন বলে জানা গেছে।

ইএ