স্বাস্থ্য
দেশে এখন
প্রচণ্ড গরমে বাড়ছে পানিবাহিত রোগ
চলমান তাপদাহে অতিষ্ঠ জনজীবন। এতে বাড়ছে পানিবাহিত রোগ। রাজধানীর আইসিডিডিআরবি'তে প্রতিদিন ভর্তি হচ্ছেন প্রায় ৫০০ রোগী। চিকিৎসকরা বলছেন, চলমান তাপদাহ অব্যাহত থাকলে অস্বাভাবিক হারে বাড়তে পারে পানিবাহিত রোগীর সংখ্যা।

উত্তাপ ছড়াচ্ছে সূর্য। তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রি ছুইছুই। শরীর থেকে ঝরছে অনবরত ঘাম। তীব্র এ গরমে দুর্ভোগ নেমে এসেছে জনজীবনে। সব শ্রেণি পেশার মানুষের নাকাল অবস্থা এই তাপদাহে। বিশেষ করে নিম্ন আয়ের মানুষের কষ্ট চোখে পড়ার মতো।

তারা বলেন, গরম অনেক বেশি। তবুও পেটের দায়ে গাড়ি চালাইতে হইতেছে। গরমে কোথাও দাঁড়ানো যায় না। জীবন যায় যায় অবস্থা।

অতিরিক্ত গরমে বাড়ে পানির চাহিদা। তবে সেই পানি কিংবা অন্য যেকোন খাবারই যখন অনিরাপদ তখন ডায়রিয়া অনিবার্য। টানা দাবদাহে প্রতিদিন নতুন নতুন রোগী ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে ভর্তি হচ্ছেন হাসপাতালে।

আইসিডিডিআরবি বলছে, গতবারের চেয়ে এবার এখনো রোগীর সংখ্যা কম। তাই নিরাপদ খাবার খাওয়া ও পর্যাপ্ত পানি পানের পরামর্শ দিলেন কলেরা হাসপাতালের সিনিয়র স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. এস এম রফিকুল ইসলাম।

তিনি বলেন, 'পানি যদি নিরাপদ না হয় তাহলে পানিবাহিত রোগ বৃদ্ধির প্রবণতা বেড়ে যায়। তাই এ সময় ভালো থাকার জন্য পর্যাপ্ত পানি পান করার প্রয়োজনীয়তা রয়েছে। তবে অবশ্যই নিরাপদ পানি পান করতে হবে।'

এদিকে আবহাওয়া অধিদপ্তরের পূর্বাভাস বলছে, দেশের ওপর দিয়ে চলমান মৃদু থেকে তীব্র তাপপ্রবাহ অব্যাহত থাকতে পারে।

এভিএস