শিল্প-কারখানা
অর্থনীতি
বড় প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে পারছেন না ক্ষুদ্র উদ্যোক্তারা
বড় করপোরেট কোম্পানির সঙ্গে পেরে উঠছেন না ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তারা। এনবিআরের প্রাক বাজেটের আলোচনায় আবারও ভ্যাট রিটার্ন সহজ করাসহ কাঁচামাল আমদানিতে শুল্ক প্রত্যাহারের দাবি জানান তারা।

খাদ্যপণ্য থেকে শুরু করে ঘরের আসবাবপত্র। প্রয়োজনীয় ও মৌলিক চাহিদার সব পণ্যের বাজার তৈরি হয়েছে ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তাদের হাত ধরে।

তবে সক্ষমতার সীমাবদ্ধতা, নীতি ও নিয়ন্ত্রকের সমস্যা, অর্থায়ন, অবকাঠামো ও দক্ষতার চ্যালেঞ্জে বাজারে জায়গা করে নিয়েছে বড় করপোরেট প্রতিষ্ঠান। হারিয়ে যেতে বসেছেন ক্ষুদ্র উদ্যোক্তারা।

এনবিআরের আড়াই লাখ কোটি টাকা রাজস্ব ছাড়ের অন্যতম সুবিধাভোগী এসএমই খাত। ফাউন্ডেশন গড়ার মাধ্যমে এ খাতকে আবারও টেনে তুলতে চায় সরকার।

উদ্যোক্তাদেরও দাবি ভ্যাট রিটার্ন সহজ করা, কাঁচামাল আমদানিতেও শুল্ক প্রত্যাহারের। এছাড়া আরও বেশকিছু প্রস্তাব আসে এনবিআরের প্রাক বাজেট আলোচনায়।

জবাবে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম বলেছেন, এসএমই খাতের যথেষ্ট অগ্রগতি হচ্ছে না। হারিয়ে যাওয়া উদ্যোক্তাদের আবার সুযোগ দিতে চায় এনবিআর।

বলেন, 'আমি নিজে দেখছি এসএমই খাতের ভবিষ্যত অন্ধকার। কারণ এসএমই'র জায়গাটা বড় প্রতিষ্ঠানগুলো নিয়ে ফেলছে। এখন কোন দিক থেকে আমি সামাল দিবো। এটার সমস্যা নিয়ে আরেকটু গভীরে গিয়ে দেখতে হবে।'

আগামী অর্থ বছরে বিলাসবহুল গাড়ির সারচার্জ, করপোরেট করহার বাড়ানোসহ কার্বোনেট বেভারেজের করহার বাড়ানোর প্রস্তাবনাও উঠে আসে আলোচনায়।

এভিএস