ওটিটি
সংস্কৃতি ও বিনোদন
বছরজুড়ে আলোচনায় ওটিটি'র কন্টেন্ট
দেশ-বিদেশের স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্মগুলোতে এ বছর মুক্তি পেয়েছে বহু কনটেন্ট। এক একটি সিনেমা, সিরিজের গল্প ছাড়িয়ে গেছে অন্যটিকে। সিরিজের বছরে যেমন এসছে আলোচনার সঙ্গে নানা প্রাপ্তি, তেমনি হয়েছে সমালোচনাও। সেই ভিড়ের মধ্যেও বছরজুড়ে আলোচিত কনটেন্টগুলো পেয়েছে দর্শকপ্রিয়তা।

সাসপেন্স-থ্রিলার থেকে রোমান্স-ড্রামায় ভরপুর ওয়েব জগতের কিছু কন্টেন্ট বছরজুড়ে ছিল দর্শকপ্রিয়তায় আলোচনা-সমালোচনার তুঙ্গে। বিদেশি ওটিটি প্লাটফর্ম নেটফ্লিক্স, অ্যামাজন প্রাইম, জি ফাইভ, জিও সিনেমা, ডিজনি প্লাস, হটস্টার, হইচই কিংবা দেশীয় ওটিটি প্লাটফর্ম চরকি, বিঞ্জ, দীপ্ত প্লে, আইস্ক্রিনে উঠে আসে বছরের আলোচিত কিছু ওয়েব।

মেড ইন হেভেন

ওয়েব সিরিজের জগতে অ্যামাজন প্রাইমের মেড ইন হেভেন সিরিজটি ভীষণ জনপ্রিয়। আগের সিরিজের চরিত্রদের নিয়েই তৈরি করা হয়েছে দ্বিতীয় পার্ট। এ সিরিজে দেখা যায় প্রেম-ভালোবাসার অদ্ভুত সমীকরণের সুন্দর একটি গল্পের।

কালকুট

বছর জুড়ে আলোচনায় জিও সিনেমায় মুক্তিপ্রাপ্ত ভারতের পুরাণের মোড়কে সিরিজ কালকুট। উত্তরপ্রদেশের পুলিশদের নিয়ে তৈরি এ গল্পটি বছরের সেরা সিরিজগুলির মধ্যে অন্যতম। সামাজিক সমস্যা বা সিস্টেমের বিরুদ্ধে কিছু মানুষের বিরোধিতা, অ্যাসিড অ্যাটাকের মত স্পর্শকাতর বিষয়টিও তুলে ধরা হয়েছে এই সিরিজটির মধ্যে।

দ্যা নাইট ম্যানেজার ২

ডিজনি প্লাস হটস্টারে আলোচিত সিরিজ দ্যা নাইট ম্যানেজার ২। ক্রাইম থ্রিলার ধাঁচের বাংলাদেশের পটভূমি নিয়ে হিন্দি এ ওয়েবে একসঙ্গে অভিনয় করেন বলিউড স্টার আদিত্য রায় কাপুর ও অনিল কাপুর।

স্ক্যাম

সোনি লিভে স্ক্যাম নামক ওয়েবসিরিজটি কাল্পনিক থ্রিলার। সঞ্জয় সিংহের বই থেকে অনুপ্রাণিত সিরিজটি পরিচালনা করেছেন তুষার হীরানন্দানী এবং হংসল মেটা। ১০ এপিসোডের ওয়েব সিরিজটি বছরজুড়ে ছিলো আলোচনার তুঙ্গে।

টুথ পরী

আলোচনায় ছিলো নেটফ্লিক্স'র সিরিজ টুথ পরী। এ সিরিজে মুখ্য চরিত্রে রয়েছেন দিল দোস্তি ডান্স, গঙ্গুবাই কাঠিয়াবাড়ি খ্যাত অভিনেতা শান্তনু মাহেশ্বরী ও অভিনেত্রী তানিয়া মানিকতলা। ওয়েব সিরিজটি প্রেম কাহিনী বলে মনে হলেও পাঁচটা ওয়েব সিরিজের মত সরল প্রেম কাহিনী নয়। এর পরিচালক প্রতীম দাশগুপ্ত।

ছোটলোক

বছর জুড়ে আলোচনায় বাংলা ওয়েব সিরিজ ছোটলোক। জি ফাইভ এর এ থ্রিলার বাজারচলতি নয়। খুনের তদন্তের মোড়কে গল্প সাজানো হলেও তা ছুঁয়ে গিয়েছে সমাজের নানা আঙ্গিক। সিরিজে সাবিত্রী'র চরিত্রে অভিনেত্রী দামিনী বেণী বসুর অভিনয় প্রশংসা কুড়িয়েছে। তিনি ছাড়াও সিরিজে অভিনয় করেছেন ইন্দ্রাণী হালদার, ঊষসী রায়, প্রিয়াঙ্কা সরকার, গৌরব চক্রবর্তী প্রমুখ।

ইন্দুবালা ভাতের হোটেল

হইচইয়ের আরেক সিরিজ কল্লোল লাহিড়ীর চর্চিত উপন্যাস অবলম্বনে ইন্দুবালা ভাতের হোটেল। বাংলা ওটিটি-র বেশির ভাগ একঘেয়ে গল্পের মধ্যে দেবালয় ভট্টাচার্য পরিচালিত এ সিরিজ দর্শকের মনে এক অন্যরকম দোলা দিয়ে যায়। ।

রাজনীতি

বাংলায় স্লো বার্ন থ্রিলার সৌরভ চক্রবর্তী পরিচালিত হইচইয়ের 'রাজনীতি' আলাদা করে উল্লেখের দাবি রাখে। রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে এ রহস্যগল্প শুরু থেকেই দর্শকদের ছোটখাটো 'ক্লু' দিতে যায়। সিরিজের মুখ্যচরিত্র দিতিপ্রিয়ার অভিনয় এখন পর্যন্ত ওটিটি-তে তার সেরা কাজ।

ডাকঘর

বাংলায় থ্রিলারের ভিড়ে ভিন্নস্বাদের গল্প হইচইয়ের 'ডাকঘর'। শহরাঞ্চল থেকে দূরের গ্রামে নিজের শিকড়ের সন্ধানে পৌঁছে যাওয়া এক পোস্টমাস্টারের গল্প। মুখ্যচরিত্রে সুহোত্র মুখোপাধ্যায়ের সাবলীল অভিনয় সিরিজের ভিত তৈরি করেছে। সঙ্গে গ্রামজীবনের সারল্য এবং নয়নাভিরাম দৃশ্যপট।

বুকের মধ্যে আগুন

হইচই অরিজিনাল সিরিজগুলোর মধ্যে রয়েছে 'বুকের মধ্যে আগুন'। এটি নির্মাণ করেছেন তানিম রহমান অংশু। এতে অভিনয় করেছেন জিয়াউল ফারুক অপূর্ব। গল্পে দেখা যায় নব্বই দশকের একজন সুপারস্টারের রহস্যজনক মৃত্যু দেশের মানুষকে স্তব্ধ করে দেয়।

মহানগর ২

হইচই বাংলাদেশ ওটিটিতে 'মহানগর ২' নিয়ে আবারও হাজির হয়েছিলেন আশফাক নিপুণ। ঈদুল ফিতরে মুক্তি পাওয়া মোশাররফ করিম ওসি হারুন চরিত্রে আলোড়ন তৈরি করে।

দেশীয় ওটিটি প্লাটফর্ম চরকির ২০২৩ সালের শুরুটা হয়েছিল শঙ্খ দাশগুপ্ত পরিচালিত চরকি অরিজিনাল সিরিজ 'গুটি' দিয়ে। এই সিরিজের মধ্যে দিয়ে। চরকিতে প্রথমবারের মতো অভিনয় করেন আজমেরী হক বাঁধন। ফেব্রুয়ারি মাসের শেষ দিকে মুক্তি পায় 'ইন্টার্নশিপ'। রেজাউর রহমান পরিচালিত এক ঝাঁক তরুণ অভিনেতাদের নিয়ে নির্মিত হয়েছিল সিরিজটি।

মাইশেলফ অ্যালেন স্বপন

চলতি বছরের সবচেয়ে আলোচনা সৃষ্টি করা সিরিজটি মুক্তি পায় এপ্রিল মাসে ঈদুল-ফিতরে। শিহাব শাহীন পরিচালিত এ সিরিজ 'মাইশেলফ অ্যালেন স্বপন' ছিল চরকির এ বছরের সুপারহিট কনটেন্ট। নাসির উদ্দিন খান ও রাফিয়াত রশিদ মিথিলা তাদের অভিনয়ের রসায়ন দিয়ে জয় করেছিল সবার মন। সেই সাথে 'বৈয়াম পাখি' গানে নেচেছিল সকলে।

মারকিউলিস, ভাইরাস, প্রচলিত

জুন মাসে ঈদুল আযহাতে মুক্তি পায় আবু শাহেদ ইমন পরিচালিত 'মারকিউলিস'। সাবিলা নূর, জাকিয়া বারী মম, ফজলুর রহমান বাবুসহ ২২ জন শিল্পী অভিনয় করেছেন এ সিরিজে। এরপর আগস্ট মাসে চরকির দর্শক দেখতে পায় অনম বিশ্বাস পরিচালিত নতুন ধরনের 'ভাইরাস'-এর গল্প। আর বছর শেষে মুক্তি পায় গা ছমছমে ৫টি গল্প নিয়ে আবিদ মল্লিক পরিচালিত সিরিজ 'প্রচলিত'।

উনিশ২০

দীর্ঘ ৮ বছর পর শুভ-বিন্দু জুটি হয়ে আসে চরকি অরিজিনাল ফিল্ম 'উনিশ২০'-এ। মিজানুর রহমান আরিয়ান পরিচালিত ভালোবাসা দিবসের সিনেমাটি শান্তি চুক্তি, পাখি পাখি মন-সহ আরও মন মাতানো গান দর্শক মুগ্ধ করে।

সামথিং লাইক অ্যান অটোবায়োগ্রাফি


বছর শেষে চরকি তার দর্শকের জন্য দুর্দান্ত এক উপহার দিয়েছে মিনিস্ট্রি অফ লাভ-এর প্রথম সিনেমা 'সামথিং লাইক অ্যান অটোবায়োগ্রাফি'। মোস্তফা সরয়ার ফারুকী পরিচালিত ও প্রথমবারের মতো অভিনীত এ সিনেমায় জুটি বেঁধেছিলেন নুসরাত ইমরোজ তিশা।

নিকষ

দেশীয় ওটিটি প্ল্যাটফর্ম দীপ্ত প্লেতে আলোড়ন ফেলে ফারিণ অভিনীত ওয়েব ফিল্ম 'নিকষ'। দুই বোনের জীবনবাজির গল্প নিয়ে নির্মিত হয়েছে নিকষ। মেজবাহ উদ্দীন সুমনের কাহিনি, চিত্রনাট্য ও সংলাপে এটি নির্মাণ করেছেন রুবেল হাসান।

ফ্রাইডে

দেশীয় ওটিটি প্ল্যাটফর্ম বিঞ্জ-এ আলোচিত সিনেমা ফ্রাইডে। এতে তমা মির্জার সঙ্গে আরও অভিনয় করেছেন নাসির উদ্দিন খান, নীলাঞ্জনা নীলসহ অনেকেই।

আমি কী তুমি

আরেক দেশীয় ওটিটি প্ল্যাটফর্ম আইস্ক্রিনের প্রথম অরিজিনাল ওয়েব সিরিজ 'আমি কী তুমি'। ভিকি জাহেদের এ সিরিজ পেয়েছে দর্শকপ্রিয়তা।

মোবারকনামা

চলতি বছরের সবশেষ আকর্ষণ হইচই বাংলাদেশের পাঁচ পর্বের নতুন সিরিজ মোবারকনামা। গোলাম সোহরাব দোদুল পরিচালিত সিরিজটিতে ব্যতিক্রম চরিত্রে দেখা গেছে মোশাররফ করিমকে। চার পাশের চেনা গল্প নিয়েই এগোয় সিরিজের কাহিনী।

এমএসআরএস