এখন মাঠে
‘তামিমকে দেশের স্বার্থ বড় করে দেখতে হবে’
তামিম ইকবালের দেয়া কোন শর্তে নয়। বাংলাদেশের ক্রিকেটের স্বার্থে উল্টো বিসিবি তামিমকে শর্ত দেবে। আর সেই অনুযায়ী দেশের স্বার্থ বড় করে দেখেই তামিম ইকবালের খেলা উচিত। এমনটাই মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) পরিচালক নাঈমুর রহমান দুর্জয়।

জাতীয় দলে ফিরতে হলে অনেককিছু ঠিক হতে হবে, তামিমের এমন বক্তব্যে প্রশ্ন উঠেছে, দলের বাকিদের সঙ্গে তবে কি অন্যায় হচ্ছে। গণমাধ্যমে প্রকাশ্যে তামিমের এমন মন্তব্য ঠিক ভালোভাবে নেয়নি বিসিবিও।

তামিমের এমন মন্তব্যে ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন বোর্ড পরিচালক খালেদ মাহমুদ সুজন। এবার তামিমের জাতীয় দলে ফেরার শর্ত প্রসঙ্গে আরেক বোর্ড পরিচালক দুর্জয় প্রশ্ন তুললেন, একজন ক্রিকেটারের দলের প্রতি দায়বদ্ধতা নিয়ে। সাফ জানালেন, বিসিবির কাছে ব্যক্তি নয় দেশ বড়।

নাঈমুর রহমান দুর্জয় বলেন, ‘জাতীয় স্বার্থে আমি শর্ত দেবে না, টিম আমাকে শর্ত দেবে। এখানে আমি একজন টিমকে শর্ত দিতে পারি না। টিম একজন ব্যক্তিকে দেশের স্বার্থে শর্ত দিতে পারে। আর একজন প্লেয়ারের উচিত, টিমকেই প্রাধান্য দেয়া।’

অধিনায়কের দায়িত্বে থাকার পরও আফগানিস্তানের বিপক্ষে হঠাৎ করে সিরিজ চলা অবস্থায় তামিম ইকবালের অবসর ঘোষণা। এরপর অবসর ভেঙে ফেরা। কিন্তু তামিমকে নিয়ে নাটকীয়তার শুরু যেন সেখান থেকেই। না ক্রিকেট বোর্ড, না তামিম হয়নি কোন মিল। সবই হয়েছে গড়মিল।

জোর গুঞ্জন, তামিম ইকবাল শর্তসাপেক্ষে জাতীয় দলে ফিরতে চান। শর্তগুলোর মধ্যে অন্যতম ওপেনিং পজিশন ছাড়া জাতীয় দলের হয়ে খেলবেন না। হেড কোচ চান্ডিকা হাথুরুসিংহের অধীনেও খেলতে চান না তিনি।

তবে নাঈমুর রহমান দুর্জয়ের দৃষ্টিতে একজন পেশাদার ক্রিকেটারের এমন শর্ত অযৌক্তিক বরং শৃঙ্খলা ভঙ্গের শামিল। তিনি বলেন, ‘শুধু তামিমই না, সিনিয়র প্লেয়ারদের এখন উদাহরণ তৈরির সময়। এদের এমনকিছু করা উচিত, যা আগামী দিনে বাংলাদেশের ক্রিকেটকে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারে।’

ওপেনিং পজিশন ছাড়া খেলবেন না তামিম, যদিও কিছুদিন আগেই ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে জ্যামের কারণে প্রায় দুই ঘণ্টা পর মাঠে পৌঁছান তামিম। সেদিন কিন্তু তিনি ওয়ান ডাউনে খেলেছেন।

এওয়াইএইচ