দেশে এখন
চুয়াডাঙ্গা ও পাবনায় হিট স্ট্রোকে দুই জনের মৃত্যু
চুয়াডাঙ্গা ও পাবনায় তীব্র গরমে হিট স্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে দুই জনের মৃত্যু হয়েছে।

শনিবার (২০ এপ্রিল) সকালে চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার ঠাকুরপুর গ্রামে ধানের ক্ষেতে কাজ করার সময় হিট স্ট্রোকে আক্রান্ত হন জাকির হোসেন (৩৩) নামের এক কৃষক। এরপর তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

নিহত জাকির হোসেন (৩৩) দামুড়হুদা উপজেলার ঠাকুরপুর গ্রামের আমির হোসেনের ছেলে। এছাড়া তিনি ঠাকুরপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দপ্তরি হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

স্বজনরা জানান, সকালে ধানের ক্ষেতে সেচ দিতে যায় জাকির হোসেন। ঘণ্টাখানেক মাঠে থাকার পর খবর পাওয়া যায় তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। পরে মাঠের অন্য কৃষকরা তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

দামুড়হুদা উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা হেলেনা আক্তার নিপা জানান, এক রোগীকে স্ট্রোকজনিত কারণে হাসপাতালে আনা হয়। কিন্তু হাসপাতালে আসার আগেই তার মৃত্যু হয়েছে।

অন্যদিকে পাবনার ঈশ্বরদীতে তীব্র তাপদাহে হিট স্ট্রোক করে মারা যান সুকুমার দাস (৬০) নামের একজন। দুপুরে পাবনা শহরের একটি চায়ের দোকানে চা খাওয়ার সময় তিনি হিট স্ট্রোকে আক্রান্ত হন।

আজ বিকেল ৩টায় চুয়াডাঙ্গা জেলার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৪২ দশমিক ৩ ডিগ্রি ও পাবনার ঈশ্বরদীতে রেকর্ড করা হয়েছে ৪১.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা।

এভিএস