দেশে এখন
মৌলিক আইন বাংলায় করতে কমিটি গঠনের নির্দেশ হাইকোর্টের
দেশের প্রচলিত মৌলিক আইনের বাংলায় অনুদিত নির্ভরযোগ্য পাঠ প্রণয়ন ও প্রকাশে একটি কমিটি গঠনের আদেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। এ কমিটিকে অবিলম্বে এ বিষয়ে অগ্রগতি প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেল, বাংলা একাডেমি, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন ও বাংলা বিভাগ, আইন কমিশনের প্রতিনিধির সমন্বয়ে আইন মন্ত্রণালয়কে এ কমিটি করতে বলেছেন উচ্চ আদালত।

সুপ্রিম কোর্টের ১০ আইনজীবীর করা রিটের প্রেক্ষিতে সোমবার (১৪ মার্চ) বিচারপতি মো. আশফাকুল ইসলাম ও বিচারপতি মো. ইকবাল কবিরের হাইকোর্ট বেঞ্চসহ এই আদেশ দেন।

রুলে আদালতের কার্যক্রম পরিচালনায় অর্থবহভাবে বাস্তবায়ন করতে দেশের প্রচলিত মৌলিক আইনের বাংলায় অনুদিত নির্ভরযোগ্য পাঠ প্রণয়ন ও প্রকাশে কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না, তা জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট।

রিটের আগে এই ১০ আইনজীবী নোটিশ দিয়েছিলেন। নোটিশে বলা হয়, আদালতের যাবতীয় কার্যাবলী আইনের আলোকে পরিচালিত হয়। আদালতের কার্যক্রম সংক্রান্ত মৌলিক আইনগুলো হলো—দণ্ডবিধি, ১৮৬০; সাক্ষ্য আইন, ১৯৭২; চুক্তি আইন, ১৮৭২; সুনির্দিষ্ট প্রতিকার আইন, ১৮৭৭; সিভিল কোর্টস অ্যাক্ট, ১৮৮৭; সম্পত্তি হস্তান্তর আইন, ১৮৮২; ফৌজদারি কার্যবিধি, ১৮৯৮; দেওয়ানি কার্যবিধি, ১৯০৮; এবং তামাদি আইন, ১৯০৮।

এসএসএস