দেশে এখন
চার মামলায় ট্রান্সকম গ্রুপের শীর্ষ তিন কর্মকর্তার জামিন
ট্রান্সকম গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা লতিফুর রহমানের ছোট মেয়ে শাযরেহ হকের করা হত্যাসহ প্রতারণার পৃথক চার মামলায় জামিন পেয়েছেন প্রতিষ্ঠানটির শীর্ষ তিন কর্মকর্তা। ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) আদালতের বিচারক মাহবুব আহমেদ আজ (বুধবার, ৩ এপ্রিল) এ আদেশ দেন।

আদালতে জামিন পাওয়া আসামিদের মধ্যে রয়েছেন শাযরেহ হকের বড়বোন ও গ্রুপের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) সিমিন রহমান, ট্রান্সকম গ্রুপের বর্তমান চেয়ারম্যান শাহনাজ রহমান এবং হেড অব ট্রান্সফরমেশন যারেফ আয়াত হোসেন।

উচ্চ আদালতের নির্দেশে অভিযুক্তরা সিএমএম কোর্টে আত্মসমর্পণ করলে মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মাহবুব আহমেদ ৫ হাজার টাকার বন্ডে জামিনের এ আদেশ দেন। সব এলিগেশন থাকার পরও জামিন মঞ্জুর করায় উচ্চ আদালতে আপিল করার কথা জানিয়েছেন বাদীপক্ষ।

চার মামলা দায়েরের সময় ট্রান্সকম গ্রুপের এই তিন কর্মকর্তা বিদেশে ছিলেন। যাতে তারা কোনো ধরনের বাধা ছাড়া দেশে ফিরে আইনিভাবে বিচারিক প্রক্রিয়ায় অংশ নিতে পারেন, সে জন্য উচ্চ আদালতে পৃথক রিট আবেদন করা হয়েছিল।

সেই আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বাধা ছাড়াই দেশে ফেরা এবং ফেরার পর ৭২ ঘণ্টার মধ্যে আদালতে আত্মসমর্পণের বিষয়টি নিশ্চিত করতে নির্দেশ দেয়া হয়েছিল।

গ্রুপটির তিন কর্মকর্তা দেশে ফিরে আজ বুধবার সকালে ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির হন। এরপর তারা আইনি প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে আদালতে আত্মসমর্পণ ও জামিন আবেদন করেন। পরে শুনানি নিয়ে আদালত চারটি মামলায় তাদের জামিন মঞ্জুর করেন।

আসু