পুঁজিবাজার
অর্থনীতি
আবারও কর সুবিধা চায় অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানি
ফান্ড ও বন্ড ব্যবস্থাপনার অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানিগুলোকে আবারও কর সুবিধার আওতায় রাখার সুপারিশ করা হয়েছে। সুবিধা অনুযায়ী এসব প্রতিষ্ঠান গত এক যুগ ধরেই ব্যবস্থাপনা ফি বাবদ অর্জিত আয়ের ওপর ১৫ শতাংশ হারে কর দিচ্ছে। চলতি অর্থবছরে প্রতিষ্ঠানগুলোর ওই সুবিধা আরও বাড়তে পারে। এর আগেই এনবিআর ওই কর সুবিধার মেয়াদ বৃদ্ধি করছে বলে জানা গেছে।

এনবিআর সূত্রে জানা যায়, কোম্পানিগুলোর কেবল মিউচুয়াল ফান্ড ব্যবস্থাপনা ফি বাবদ অর্জিত আয়ের ওপর প্রদেয় করহার ২০২৫-২০২৬ করবর্ষ পর্যন্ত ১৫ শতাংশ নির্ধারণ করতে প্রস্তাব দিয়েছে এনবিআরের আয়কর বিভাগ।

অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানির একাধিক কর্মকর্তা সূত্রে জানা যায়, গত এক দশকে অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট সেক্টরে উচ্চ-দক্ষ কর্মশক্তির ফান্ড ম্যানেজারদের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে এবং স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক বাজারে ইতিবাচকভাবে অবদান রাখছে। এসব বিবেচনায় অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানিসমূহের কেবল মিউচুয়াল ফান্ড ব্যবস্থাপনা ফি বাবদ অর্জিত আয়ের ওপর প্রদেয় করহার ২০২৫-২০২৬ করবর্ষ পর্যন্ত ১৫ শতাংশ নির্ধারণের করার সুপারিশ করা হয়েছে।

সম্প্রতি পূর্বের কর হার রাখতে কোম্পানিগুলোর সংগঠন অ্যাসোসিয়েশন অব অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানিজ অ্যান্ড মিউচুয়াল ফান্ডস আবেদন করে। সংগঠনটি পুঁজিবাজারের সাম্প্রতিক সংকটকালীন মুহূর্তে বাজারের স্থিতিশীলতা ফিরিয়ে আনার জন্য প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগ বৃদ্ধি ও বিনিয়োগকারী প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে ব্যবসাবান্ধব পরিবেশ সৃষ্টির নিমিত্ত অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানিসমূহের আয়কর ১৫ শতাংশ নির্ধারণ করতে অনুরোধ করেছে বলে জানা গেছে।

বাংলাদেশে সিকিউরিটিজ অ্যান্ড একচেঞ্জ কমিশনের তথ্য মতে, দেশে অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানির সংখ্যা ৬৪টি। ২০১৩ সালের ২৭ নভেম্বর এসআরও এর মাধ্যমে অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানিসমূহের কেবল মিউচুয়াল ফান্ড ব্যবস্থাপনা ফি বাবদ অর্জিত আয়ের ওপর প্রদেয় আয়কর প্রজ্ঞাপন জারির তারিখ হতে ১০ (দশ) বৎসরের জন্য ১৫ শতাংশ নির্ধারণ করা হয়। যার মেয়াদ ২০২৩-২০২৪ করবর্ষে উত্তীর্ণ হয়েছে।

এসএসএস