দেশে এখন , পরিষেবা
অর্থনীতি
বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধির খবরে গ্রাহকদের দুশ্চিন্তা বাড়ছে
বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধির খবরে সাধারণ ভোক্তা থেকে ব্যবসায়ী ও উদ্যোক্তারা দুশ্চিন্তায় পড়েছেন। তারা বলছেন, এমন মূল্যস্ফীতির বাজারে বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধি তাদের দীর্ঘমেয়াদে ভোগাবে।

ডলার সংকট ও মূল্যস্ফীতিতে বাজারে যখন বেশিরভাগ নিত্যপণ্যের দাম চড়া, তখন বিদ্যুতের দাম বাড়ার খবরে চিন্তা আরো কিছুটা বাড়লো ভোক্তার। তারা বলেন, বিদ্যুতের দাম বাড়লে সব পণ্যের দামেই কমবেশি প্রভাব পড়বে। এক বাজার থেকে অন্য বাজার, পাইকারি থেকে খুচরায় পণ্য হাতবদলের চক্রে যার খরচ শেষ পর্যন্ত ভোক্তার পকেটের ওপরই চাপে।

এক ক্রেতা বলেন, ‘প্রতিদিনই নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের দাম বাড়ছে। আবার বিদ্যুতের দাম বাড়লে সব পণ্যের দামও বেড়ে যাবে। কারণ, বিদ্যুতের ওপরই সবকিছু।’

এদিকে বিদ্যুতের দাম বাড়ার খবরে পোল্ট্রি শিল্পের ব্যবসায়ীদের দুশ্চিন্তা বেড়েছে। তারা বলছেন, মুরগির বাচ্চা উৎপাদন থেকে শুরু করে লালন-পালন ও বাজারজাতকরণ পর্যন্ত প্রতিটি ধাপে বিদ্যুতের প্রয়োজন হয়। খরচ বাড়তে থাকায় টিকে থাকাই কঠিন হবে পোল্ট্রি উদ্যোক্তাদের।

এক উদ্যোক্তা বলেন, ‘শেডে মুরগির বাচ্চা থাকলে সকাল-বিকাল বিদ্যুতের প্রয়োজন হয়। তাই বিদ্যুতের দাম বাড়লে আমাদের সব খরচও বেড়ে যাবে।’

পোশাক শিল্পেও বিদ্যুতের বহুল ব্যবহার রয়েছে। তুলা থেকে সুতা তৈরি, কাপড় উৎপাদন ও ডাইংয়ে বিপুল বিদ্যুতের প্রয়োজন হয়। নিরবচ্ছিন্ন উৎপাদন চালিয়ে যেতে কারখানায় স্থাপিত ছোট আকারে বিদ্যুৎকেন্দ্রের গ্যাস পুড়িয়ে বিদ্যুৎ উৎপাদনও করেন অনেক পোশাক প্রস্তুতকারকরা।

পোশাক শিল্প মালিকরা বলছেন, এমন পরিস্থিতিতে বিদ্যুতের দাম বাড়ালে এ খাতে সরাসরি প্রভাব পড়বে। উৎপাদন খরচ বাড়বে, এতে বৈশ্বিক প্রতিযোগিতায় পিছিয়ে পড়ার শঙ্কা এ খাতের ব্যবসায়ীদের।

ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস ফোরামের সভাপতি এস এম আবু তৈয়ব বলেন, ‘বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধি পেলে এই শিল্পের সব পর্যায়ে আমরা ক্ষতিগ্রস্ত হবো। এতে করে আমরা বাজারেও পিছিয়ে যাবো।’

অন্যান্য শিল্পগুলোতেও একই পরিস্থিতি। বিদ্যুতের দাম বাড়লে পণ্যের উৎপাদন খরচও বাড়বে। এতে পণ্যের দামে সরাসরি প্রভাব পড়বে। দাম বেড়ে উৎপাদিত পণ্যের ক্রেতাচাহিদা কমলে শিল্প-কারখানা চালু রাখা নিয়ে চিন্তা বাড়ছে মালিকদের। সৈয়দপুরের হালকা প্রকৌশল শিল্পেও দুশ্চিন্তা রয়েছে।

বাংলাদেশ ইঞ্জিনিয়ারিং শিল্প মালিক সমিতির সভাপতি এরশাদ হোসেন পাপ্পু বলেন, ‘সব জিনিসের দাম বাড়ার পাশাপাশি যদি আবার বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধি পায়, তাহলে উৎপাদন খরচ বেড়ে যাবে। একইসঙ্গে শ্রমিকদের মজুরিও বেড়ে যাবে।’

বাজারে স্বস্তি ফেরাতে ও বিভিন্ন শিল্পে উৎপাদন অব্যাহত রাখতে বিদ্যুতের দাম সহনীয় পর্যায়ে রাখার আহ্বান ব্যবসায়ীদের।

এওয়াইএইচ